ভারতের সংগীতাঙ্গনের উজ্জ্বল নক্ষত্র বাপ্পি লাহিড়ী। অসংখ্য শ্রোতাপ্রিয় গানের স্রষ্টা তিনি। আবার নিজের কণ্ঠেও উপহার দিয়েছেন বহু নন্দিত গান। সেই বাপ্পি লাহিড়ীই নাকি কণ্ঠস্বর হারিয়ে ফেলেছেন! এমনকি গত ৫ মাস ধরে নাকি কথাও বলছেন না তিনি। এমনটাই জানা গেল ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো থেকে।

গত এপ্রিলে মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন বাপ্পি লাহিড়ী। তখন থেকেই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। তার অসুস্থতার খবর শুনে তড়িঘড়ি করে আমেরিকা থেকে ভারতে ছুটে আসেন ছেলে বাপ্পা লাহিড়ী। এখনো বাবার পাশে রয়েছেন তিনি।

অবশ্য বাপ্পি লাহিড়ীর কণ্ঠস্বর হারানোর খবরটিকে ভিত্তিহীন দাবি করেছেন ছেলে বাপ্পা। তিনি বলেন, ‘বাবা বর্তমানে খুবই দুর্বল। ধীরে ধীরে শরীর ঠিক হচ্ছে। তবে ফুসফুসে সংক্রমণ হওয়ায় একেবারে সুস্থ হতে দেরি হচ্ছে। কিন্তু যেটা রটেছে, সেটা মোটেই ঠিক নয়। কথা না বলাটা চিকিৎসার অংশ। চিকিৎসকই বাবাকে কণ্ঠের বিশ্রাম দিতে বলেছেন।’

বাপ্পা জানান, আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষে ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের সঙ্গে একটি গান করার কথা রয়েছে বাপ্পি লাহিড়ীর। তারা আশা করছেন, পূজার আগেই সুস্থ হয়ে যাবেন গায়ক।

উল্লেখ্য, গিনেজ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডে জায়গা করে নেওয়া সংগীতশিল্পী বাপ্পি লাহিড়ী। তিনি এক বছরে ৩৩টি সিনেমায় ১৮০টি গান করেছিলেন। ভারতের সিনেমার গানে ডিসকো মিউজিকের প্রচলন করেছেন তিনিই। সত্তরের দশক থেকে সিনেমার গান করছেন বাপ্পি লাহিড়ী। ‘ডিসকো ড্যান্সার’, ‘হিম্মতওয়ালা’, ‘অমর সঙ্গী’, ‘গুরু’, ‘প্রেম প্রতিজ্ঞা’, ‘রক ড্যান্সার’, ‘আজ কে শাহেনশাহ’, ‘কমান্ডো’সহ বহু সিনেমার গান গেয়েছেন। বাংলা ও হিন্দির পাশাপাশি তিনি তেলেগু, তামিল, কন্নড় সিনেমার গানও সৃষ্টি করেছেন।


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-২০


সূত্র : ঢাকাপোস্ট