প্যাকেটজাত ১ কেজি দেশি চিনির খুচরা বিক্রয় মূল্য সর্বোচ্চ ৮৫ টাকা নির্ধারণ করলো বাংলাদেশ সুগার মিল কর্পোরেশন। মঙ্গলবার এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায় সংস্থাটি।

এতে বলা হয়, মিল গেটে এক কেজি চিনি বিক্রয়মূল্য ৬৮ টাকা থেকে বৃদ্ধি করে ৭৫ টাকা বিক্রি হবে। আর খুচরা পর্যায়ে ক্রেতাকে এক কেজি চিনি সর্বোচ্চ ৮৫ টাকায় কিনতে হবে।

এ দর আজ থেকেই কার্যকর হচ্ছে বলে জানায় বাংলাদেশ সুগার মিল কর্পোরেশন। নিত্যপণ্যের লাগামহীনভাবে দাম বৃদ্ধির মধ্যেই এবার সরকারিভাবে চিনির মূল্য বৃদ্ধিতে ক্ষুব্ধ ক্রেতারা।

এর আগে গত ৯ সেপ্টেম্বর প্রতি কেজি খোলা চিনির সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ৭৪ টাকা ও প্রতি কেজি প্যাকেটজাত চিনির সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ৭৫ টাকা নির্ধারণ করেছিলো বাংলাদেশ সুগার রিফাইনার্স অ্যাসোসিয়েশন।

আন্তর্জাতিক বাজারে গত ৫ সেপ্টেম্বরের পর থেকে চিনির দাম বাড়ায় প্রতি কেজি খোলা চিনির দাম ৮৫ টাকা ও প্যাকেটজাত চিনির দাম ৯৮ টাকা করার প্রস্তাব করেছিল সুগার রিফাইনারস অ্যাসোসিয়েশন।

ব্যবসায়ীরা বলছেন, পাইকারিতে প্রতি কেজি চিনি ৭৬ টাকায় কিনলেও পরিবহন ও অন্যান্য খরচ মিলে সামান্য লাভ ধরে কেজিপ্রতি চিনি ৮০ থেকে ৮২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া প্যাকেটজাত চিনিতে প্যাকেটপ্রতি তাদের লাভ হচ্ছে মাত্র দু-এক টাকা।

অন্যদিকে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) তথ্য বলছে, রাজধানীর বিভিন্ন বাজারে প্রতি কেজি চিনির দাম বছরের ব্যবধানে ২৪ শতাংশ বেড়েছে। গত বছরও এসব চিনি বিক্রি হয়েছে ৬০-৬৫ টাকা কেজি দরে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/আরআই-কে


সূত্র : ইন্ডিপেন্ডেন্ট