রাজনৈতিক নানা উত্তেজনার কারণে এশিয়া দুই ক্রিকেট বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ভারত-পাকিস্তানের খেলা থেকে বঞ্চিত ক্রিকেটপ্রেমীরা।

বিশ্বকাপের মতো বড় আয়োজন ছাড়া এখন আর দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশের মাঝে ক্রিকেট খেলা বন্ধ রয়েছে। যদিও পাকিস্তান কূটনৈতিক নানা প্রচেষ্টা চালিয়েছে অনেক সময়। কিন্তু ভারতের অনঢ় অবস্থানের কারণে দুই দেশের ক্রিকেটের আলোর মুখ দেখেনি।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ইতিহাসে ভারতের বিরুদ্ধে ২০১২ সালে সর্বশেষ ম্যাচ জিতেছিল পাকিস্তান। ভারতের দেওয়া ১৩৪ রানের জবাবে খেলতে নেমে পাকিস্তান মাত্র ১২ রানে তিন উইকেট হারিয়ে চরম বিপর্যয়ে পড়ে। সেখান থেকে শোয়েব মালিক ও মোহাম্মদ হাফিজের অনবদ্য ব্যাটে শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেটের বিশাল জয় পেয়েছিল পাকিস্তান।

কাকতালীয়ভাবে ৯ বছর পর ভারতের বিরুদ্ধে আজকের ম্যাচেও খেলবেন পাকিস্তানের এ দুই তারকা ব্যাটসম্যান। তাদের সামনে এখন ৯ বছর আগের ইতিহাস জ্বলজ্বল করছে। আজ পাকিস্তানের যে ৫ ক্রিকেটারের প্রতি দৃষ্টি রাখবে ক্রিকেটপ্রেমীরা তার মধ্যে এই দুই ব্যাটসম্যান অন্যতম।

বিশ্বকাপের আসরে আজ উত্তেজনার পারদ চড়েছে এশিয়ার দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের মাঝে। দুই দলই ইতিমধ্যে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিজেদের ঘরে তুলেছে। দুই দেশই এবারের বিশ্বকাপের হটফেভারিট। ম্যাচটিকে ঘিরে পুরো এশিয়াজুড়ে উত্তেজনায় কাঁপছে।

দুবাইয়ে আজ রোববার বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় শুরু হবে বিশ্বকাপের ওই হাইভোল্টেজ ম্যাচ। এর আগে টি-২০ বিশ্বকাপে পাঁচ বার মুখোমুখি হয়েছে ভারত এবং পাকিস্তান। সব ম্যাচই পাকিস্তানকে হারিয়েছে ভারত। এবার পাকিস্তান চাইবে ভারতকে হারিয়ে সেই দুর্নাম ঘুচাতে। এবারের বিশ্বকাপের হট ফেভারিট ইমরান খানের উত্তরসূরীরা।

এক টুইটবার্তায় পিসিবি চেয়ারম্যান ও পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক রমিজ রাজা পাকিস্তানি খেলোয়াড়দের উদ্দেশে বলেছেন, ছেলেরা তোমাদের জন্য শুভকামনা রইল। তোমাদের মনে রাখতে হবে, লাখ লাখ মানুষের হৃদয়কম্পন হচ্ছে, তোমাদের জন্য দোয়া করছে লাখ লাখ মানুষ। টুইটবার্তা শেষে তিনি ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করেন।

ভারতের সাবেক অধিনায়ক আজহার উদ্দিন এক টুইটবার্তায় বলেন, বিশ্ব আজ রাতে তাকিয়ে আছে একটি অসাধারণ ম্যাচ উপভোগের জন্য।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/জিএসি-০৬


সূত্র : যুগান্তর