উৎপাদনমুখী বিনিয়োগ যে কোন দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের শর্ত। উৎপাদমুখী বিনিয়োগের মাধ্যমে কর্মসংস্থান ও আয়স্তর বৃদ্ধি পায়। বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বে অবস্থিত সিলেট অঞ্চলে রয়েছে বেশ কয়েকটি স্বনামধন্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠান যেগুলো দেশের অর্থনীতিতে ভূমিকা রাখছে।

ইতিপূর্বে সিলেটের অর্থনীতিতে উল্লেখযোগ্য ১৮টি প্রতিষ্ঠান নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো:
১। আলীম ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড
২। বারাকা পাওয়ার লিমিটেড
৩। সিলেকো ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড
৪। এম আহমেদ টি এন্ড ল্যান্ডস্ কোম্পানী লিমিটেড
৫। খাদিম সিরামিক্স লিমিটেড
৬। গোল্ডেন হারভেস্ট ফুডস লিমিটেড
৭। প্রিমিয়াম ফিশ এন্ড এ্যাগরো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড
৮। সানটেক এনার্জি লিমিটেড এবং সানটেক টায়ার লিমিটেড
৯। কুশিয়ারা ব্রিকস লিমিটেড
১০। অয়েস্টার পোলট্রি এন্ড ফিশারিজ লিমিটেড
১১। সিলেট টি কোম্পানী লিমিটেড
১২। ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেড
১৩। সিলেট ওয়েল্ডিং ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানী
১৪। স্বাদ এন্ড কোম্পানী লিমিটেড
১৫। এশিয়া ফুড
১৬। বনফুল এন্ড কোম্পানী লিমিটেড
১৭। নিনা আফজাল ইন্ডাষ্ট্রি লিমিটেড
১৮। মধুবন অভিজাত মিষ্টি বিপনী

[এছাড়াও ফিজা এন্ড কোম্পানী, রিফাত এন্ড কোম্পানী, পিউরিয়া ইত্যাদি সিলেট অঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান।]
এ সকল প্রতিষ্ঠানে কর্মরত রয়েছেন প্রায় ১৫,০০০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী। দেশের প্রায় ৭৫,০০০ জন অধিবাসী এ সকল প্রতিষ্ঠানগুলোর উপর অর্থনৈতিকভাবে নির্ভরশীল। প্রতিষ্ঠানগুলো মাসে প্রায় ২০ কোটি টাকা কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণের মাঝে বিতরণ করছে। সিলেট অঞ্চলের উৎপাদিত দ্রব্যাদি রপ্তানী হচ্ছে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে। নিম্নে যে সকল দেশে সিলেট অঞ্চলের উৎপাদিত দ্রব্যাদি রপ্তানী হচ্ছে বর্ণনা করা হলো: (উল্লেখ্য সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ড্রাষ্ট্রি এ সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহে সহায়তা করেছে)

আমেরিকাঃ
সিলেট সদর উপজেলার বলাউরায় অবস্থিত প্রিমিয়াম ফিশ এন্ড এ্যাগরো ইন্ডাষ্ট্রি লিমিটেড সরাসরি রান্নার জন্য প্রস্তুতকৃত বিভিন্ন ধরণের ছোট মাছ প্রক্রিয়াজাত করে আমেরিকায় রপ্তানি করে। তাছাড়াও প্রতিষ্ঠানটি রান্নার জন্য সরাসরি তৈরি বিভিন্ন ধরণের খাদ্যবস্তু (যেমন: পরোটা, সমুচা, সিংগারা ইত্যাদি) আমেরিকায় রপ্তানী করে থাকে। তোহফা এগ্রো প্রসেস নামক প্রতিষ্ঠান আচার ও তেজপাতা আমেরিকায় রপ্তানি করে। নিকোবিনার আচার আমেরিকায় রপ্তানি হয়। ফিজা এন্ড কোম্পানীর বিভিন্ন ধরণের খাদ্যজাত দ্রব্য আমেরিকায় রপ্তানী হয়েছে। ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেড এর মিষ্টিজাত দ্রব্য, বিস্কুট, চানাচুর ইত্যাদি আমেরিকায় রপ্তানি হয়।

ইংল্যান্ড:
প্রিমিয়াম ফুড এন্ড এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রি লিমিটেড এর প্রক্রিয়াজাতকৃত সরাসরি রান্নার জন্য প্রস্তুতকৃত বিভিন্ন ধরণের ছোট মাছ এবং খাদ্যজাত দ্রব্য ইংল্যান্ডে রপ্তানী হচ্ছে। সিলেট ওয়েল্ডিং ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানীর উৎপাদিত বিভিন্ন ধরণের চুলা ইংল্যান্ডে রপ্তানী হয়। ফুলকলি ফুড এন্ড প্রোডাক্টস লিমিটেড এর মিষ্টিজাত দ্রব্য ও খাদ্যজাত দ্রব্য ইংল্যান্ডে রপ্তানি হচ্ছে। বনফুল এন্ড কোম্পানী লিমিটেডের বিভিন্ন ধরণের বিস্কুট ইংল্যান্ডে রপ্তানী হচ্ছে। মধুবন অভিজাত মিষ্টি বিপনী এর বিভিন্ন ধরণের মিষ্টি ইংল্যান্ডে রপ্তানী হয়েছে। ফিজা এন্ড কোং এর বিস্কুট ইংল্যান্ডে রপ্তানী হয়। তোহফা এগ্রো প্রসেস এর আচার ও তেজপাতা ইংল্যান্ডে রপ্তানী হয়।

কানাডা:
প্রিমিয়াম ফিশ এন্ড এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডের এর প্রক্রিয়াজাতকৃত এবং সরাসরি রান্নার জন্য প্রস্তুতকৃত বিভিন্ন ধরণের ছোট মাছ এবং খাদ্যজাত দ্রব্য (পরোটা, সমুচা, সিংগারা ইত্যাদি) কানাডায় রপ্তানী হয়। স্বাদ এন্ড কোম্পানী লিমিটেডের উৎপাদিত বিভিন্ন মিষ্টিজাত দ্রব্য কানাডায় রপ্তানী করা হয়েছে।

সিঙ্গাপুর:
খাদিম সিরামিকস্ লিমিটেডের উৎপাদিত বিভিন্ন ধরণের সিরামিকস্ সামগ্রী সিঙ্গাপুরে রপ্তানী হয়েছে। প্রিমিয়াম ফিস এন্ড এগ্রো ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডের প্রক্রিয়াজাতকৃত ও সরাসরি রান্নার জন্য প্রস্তুতকৃত বিভিন্ন ধরণের ছোট মাছ এবং খাদ্যজাত দ্রব্য (সমুচা, সিংগারা, পরোটা ইত্যাদি) সিঙ্গাপুর রপ্তানী হয়ে থাকে।

সৌদি-আরব:
ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের মিষ্টিজাত দ্রব্য, বিস্কুট, চানাচুর ইত্যাদি সৌদি-আরবে রপ্তানী হয়। বনফুল এন্ড কোম্পানী লিমিটেডের উৎপাদিত বিভিন্ন ধরণের বিস্কুট সৌদি-আরবে রপ্তানী হচ্ছে। সিলেট অঞ্চলে উৎপাদিত আতর সৌদি-আরবে রপ্তানী হচ্ছে। সিলেটের উৎপাদিত মুড়ি, চিড়া সৌদি আরবে রপ্তানী হয়ে থাকে।

সংযুক্ত আরব-আমিরাত (ট.অ.ঊ):
বনফুল এন্ড কোম্পানী লিমিটেডের উৎপাদিত বিভিন্ন ধরণের বিস্কুট সংযুক্ত আরব আমিরাতে রপ্তানী হয়। সিলেট অঞ্চলে উৎপাদিত আতর সংযুক্ত আরব আমিরাতে রপ্তানী হয়।

কাতার:
খাদিম সিরামিকস্ এর উৎপাদিত বিভিন্ন ধরণের সিরামিকস্ পণ্য কাতারে রপ্তানী করা হয়।

কুয়েত:
সিলেট অঞ্চলে উৎপাদিত আতর কুয়েতে রপ্তানী হয়।

ভারত:
আলিম ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড এর উৎপাদিত কৃষিকাজে ব্যবহৃত মেশিন ভারত রপ্তানী হয়েছে। ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের বিভিন্ন ধরণের মিষ্টিজাত দ্রব্য, বিস্কুট, চানাচুর ভারতে রপ্তানী হয়। বনফুল এন্ড কোম্পানী লিমিটেডের বিস্কুট ভারতে রপ্তানী হয়। মধুবন অভিজাত মিষ্টি বিপনী উৎপাদিত খাদ্যদ্রব্য ভারতে রপ্তানী করেছে। এম. আহমেদ টি এন্ড ল্যান্ডস কোম্পানী লিমিটেড সিলেট উৎপাদিত রাবার ভারতে রপ্তানী করেছে।

আফগানিস্তান:
সিলকো ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড উৎপাদিত বিভিন্ন ধরণের ঔষধ আফগানিস্তানে রপ্তানী করেছে।

নেপাল:
ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের বিস্কুট, চানাচুর ও মিষ্টিহাত দ্রব্য নেপালে রপ্তানী হয়েছে।

মালোয়েশিয়া:
ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের উৎপাদিত পণ্য মালোয়েশিয়ায় রপ্তানি হচ্ছে।

শ্রীলংকা:
ফুলকলি ফুড প্রোডাক্টস লিমিটেডের উৎপাদিত পণ্য শ্রীলংকায় রপ্তানি হয়েছে।

বারহাইন:
সিলেট অঞ্চলে উৎপাদিত আতর বাহরাইনে রপ্তানী হচ্ছে।

থাইল্যান্ড:
সিলেট অঞ্চলে উৎপাদিত মুড়ি, চিড়া থাইল্যান্ডে রপ্তানী হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়া:
সিলেট অঞ্চলের উৎপাদিত নিকোবিনার আচার অস্ট্রেলিয়ায় রপ্তানী হয়েছে।

ফ্রান্স:
সিলেট অঞ্চলের উৎপাদতি নিকোবিনার আচার ফ্রান্সে রপ্তানী হয়েছে।

নাইজেরিয়া:
আলীম ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডের উৎপাদিত কৃষি যন্ত্রপাতি নাইজেরিয়ায় রপ্তানী হয়েছে।

মেক্সিকো:
আলীম আলীম ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডের উৎপাদিত কৃষি যন্ত্রপাতি মেক্সিকোতে রপ্তানী হয়েছে।

এছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সিলেট অঞ্চলে উৎপাদিত সবজি রপ্তানী হচ্ছে। সিলকো ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড তানজানিয়া, দক্ষিন কোরিয়া, উগান্ডা প্রভৃতি দেশে রপ্তানীর বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


লেখক: অধ্যাপক, ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগ, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সিলেট।