সিলেটের প্রথম বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় লিডিং ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদেরকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক‍্যাম্পাসে করোনার টিকার (ফাইজার) ২য় ডোজ প্রদান সমাপ্ত হয়েছে। অক্টোবর ১৬, ১৭, ১৮ এবং নভেম্বর ১৬ ও ২৪ তারিখে ২য় ডোজ প্রদান সম্পন্ন হয়। শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা শতভাগ নিশ্চিত করতে সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগ এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশনে সাথে লিডিং ইউনিভার্সিটির এক সমঝোতার মাধ্যমে ফাইজারের টিকার প্রদান কার্যক্রম শুরু হয়।

ইতোমধ্যে যেসব শিক্ষার্থী রেজিস্ট্রেশনের মাধ‍্যমে টিকার ১ম ডোজ গ্রহণ করেছেন তারা সবাই টিকার ২য় ডোজ পেয়েছেন। লিডিং ইউনিভার্সিটির পাবলিক হেলথ ডিপার্টমেন্টের উদ‍্যোগে টিকা প্রদান কার্যক্রম চলে। লিডিং ইউনিভার্সিটির প্রক্টরিয়াল বডি, বিনসিসি এবং রোভার স্কাউট এর সহযোগিতায় এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অফিসের ব‍্যবস্থাপনায় অত্যন্ত সুষ্ঠুভাবে এ কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। বুধবার (২৪ নভেম্বর) এ টিকা কার্যক্রম পরিদর্শন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. কাজী আজিজুল মাওলা।

তিনি টিকা গ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের সাথে কথা বলেন এবং লিডিং ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের টিকা প্রদানে সহযোগিতা করার জন‍্য সিলেটের স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা, ডাক্তার ও নার্সদের ধন্যবাদ জানান। টিকা প্রদান পরবর্তী বিশ্ববিদ্যালয়ের বোর্ডরুমে টিকা প্রদানে ভলান্টিয়ারে দায়িত্ব থাকা ২০ জন বিনসিসি এবং রোভার স্কাউটকে সনদ প্রদান করেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মেজর (অব.) মো শাহ আলম, প্রক্টর মো. রাশেদুল ইসলাম, পাবলিক হেলথ বিভাগের বিভাগীয় প্রধান কেএমএ শফিক, সহকারী প্রক্টর মানফাত জাবিন হক, লুৎফর রহমান রানা পীর, সহকারী রেজিস্ট্রার মোহাম্মদ আলমগীর হোসাইন প্রমূখ।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/পিটি-২