সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার বুধবারীবাজার ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন। বুধবারী বাজার ইউনিয়নের সাথে পার্শ্ববর্তী আমুড়া ইউনিয়নের সীমানা জটিলতা ও স্থানীয়দের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজমান থাকায় নির্বাচন স্থগিত করা হয় বলে জানিয়েছেন সিলেট বিভাগীয় নির্বাচন কর্মকর্তা ফয়ছল কাদের।

আগামী ২৬ ডিসেম্বর চতুর্থ ধাপে দেশের ৮৪০টি ইউনিয়ন পরিষদে (ইউপি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তার মধ্যে সিলেট বিভাগের ৮২টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে রয়েছে গোলাপগঞ্জের বুধবারীবাজার ইউনিয়ন। নির্বাচনী তফসিল অনুযায়ী মঙ্গলবার (৭ডিসেম্বর) ছিল প্রতীক বরাদ্দের দিন।


সিলেট ভিউ'র খবর নিয়মিত পেতে

দিয়ে যুক্ত থাকুন

প্রতীক বরাদ্দ নিতে সিলেটের অন্যান্য ইউপির প্রার্থীদের মতো গোলাপগঞ্জ উপজেলার বুধবারীবাজার ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সাধারণ সদস্য প্রার্থীরা সিলেট জেলা আঞ্চলিক নির্বাচন কমিশন অফিসে উপস্থিত হন। কিন্তু উপস্থিত অন্য সব ইউপির প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হলেও বুধবারী বাজার ই্‌উপিতে নির্বাচন স্থগিতের ঘোষণা করেন জেলার নির্বাচন কর্মকর্তা। এই ঘোষণা শুনে অনেকটা হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েন উপস্থিত আমরা ইউপির চেয়ারম্যান ও সাধারণ সদস্য পদের প্রার্থীরা।

জানা যায়, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে রোববার (৫ডিসেম্বর) গোলাপগঞ্জের বুধবারী বাজার ইউনিয়নের বহরগ্রামের মো. এমদাদুর রহমান সীমানা জটিলতা ও স্থানীয়দের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজমান বিষয়টি উল্লেখ্য করে আবেদন করেন।

তার আবদেনের প্রেক্ষিতে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের চিঠিতে বলা হয়, উপযুক্ত বিষয় ও সূত্রস্থ স্মারকের প্রেক্ষিতে জানানাে যাচ্ছে যে, সিলেট জেলার গােলাপগঞ্জ উপজেলার ৫নং বুধবারী বাজার ইউনিয়নের সাথে পার্শ্ববর্তী আমুড়া ইউনিয়নের সীমানা জটিলতা এবং স্থানীয়দের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজমান সংক্রান্ত আবেদনের বিষয়টি সরেজমিন তদন্তপূর্বক মতামতসহ প্রতিবেদন জরুরি ভিত্তিতে এ বিভাগে প্রেরণের জন্য জেলা প্রশাসক, সিলেটকে সূত্রস্থ ২ নং স্মারকে অনুরােধ করা হয়েছে।

চিঠিতে আরও বলা হয়, বর্ণিতাবস্থায়, জেলা প্রশাসক, সিলেটের তদন্ত প্রতিবেদন না পাওয়া পর্যন্ত আগামী ২৬ ডিসেম্বর ২০১১ তারিখে অনুষ্ঠিতব্য সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ উপজেলার বুধবারী বাজার ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিত রাখার প্রয়ােজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গোলাপগঞ্জ উপজেলার ১১টি ইউনিয়নে আজ মঙ্গলবার (৭ ডিসেম্বর) প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হচ্ছে। মনোনয়নপত্র দাখিল ২৫ নভেম্বর। বাছাই ২৯ নভেম্বর। আপিল ৩০ থেকে ২ ডিসেম্বর। আপিল নিষ্পত্তি ৩ থেকে ৫ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৬ ডিসেম্বর।


সিলেটভিউ২৪ডটকম / ডি.আর