দর্শকসারি থেকে শুরু করে দুই দলের ডাগআউটেও চলছিল টাইব্রেকারের প্রস্তুতি। ম্যাচের প্রথমার্ধে দুই দলের করা একটি করে গোলের পর মনে হচ্ছিল পেনাল্টি শ্যুটআউটেই মীমাংসা হবে ইতালিয়ান সুপার কাপের। বাঁধ সাধলেন অ্যালেক্সিস সানচেজ, জুভেন্টাসকে ২-১ গোলে হারিয়ে দিলো ইন্টার মিলান।

ম্যাচের নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পর অতিরিক্ত ৩০ মিনিট শেষ হওয়ার পর যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে গোল করে ইন্টার মিলানকে শিরোপা এনে দিয়েছেন চিলির তারকা ফরোয়ার্ড। তার ১২১ মিনিটের গোলে দীর্ঘ ১১ বছরের বেশি সময় পর সুপার কাপ জিতলো ইন্টার।


সিলেট ভিউ'র খবর নিয়মিত পেতে

দিয়ে যুক্ত থাকুন

সবশেষ ২০১০ সালে নাপোলিকে হারিয়ে ইতালিয়ান সুপার কাপের শিরোপা ঘরে তুলেছিল মিলানের ক্লাবটি। প্রায় এক যুগ পর ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাসকে হতাশার সাগরে ভাসিয়ে চ্যাম্পিয়ন হলো তারা। পুরো ম্যাচে দাপট দেখিয়ে যোগ্যতর দল হিসেবেই জিতেছে সিমোন ইনজাঘির শিষ্যরা।

মিলানের সান সিরোতে হওয়া ম্যাচটিতে ৬৪ শতাংশ সময় বলের নিয়ন্ত্রণ ছিল ইন্টারের দখলে। সারা ম্যাচে ২৩টি শট করে তারা, যার মধ্যে ছয়টি ছিল লক্ষ্যে। অন্যদিকে আট শট করে মাত্র দুইটি লক্ষ্য বরাবর রাখতে পেরেছে ওল্ড লেডিরা।

তবে ম্যাচের প্রথম গোলটি করেছিল জুভেন্টাসই। ম্যাচের ২৫ মিনিটের মাথায় দলকে এগিয়ে দেন ওয়েস্টন ম্যাককেনি। আলভারো মোরাতার ক্রস এক ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে পড়ে গোলবারের কাছে। সামনেই থাকা ম্যাককেনি সহজ সুযোগ হাতছাড়া করেননি।

সমতা ফেরাতে অবশ্য বেশি সময় নেয়নি ইন্টার। দশ মিনিটের ব্যবধানে জুভেন্টাসের কাছ থেকে উপহার হিসেবে পাওয়া পেনাল্টিতে ম্যাচে ফেরে স্বাগতিকরা। ডি-বক্সের মধ্যে ফাউলের শিকার হয়েছিলেন এডিন জেকো। পেনাল্টিতে জোরালো শটে লক্ষ্যভেদ করেন আর্জেন্টাইন তারকা লাউতারো মার্টিনেজ।

এরপর প্রথমার্ধের বাকি সময় কিংবা পুরো দ্বিতীয়ার্ধেও মেলেনি আর গোলের দেখা। ফলে খেলা গড়ায় অতিরিক্ত ত্রিশ মিনিটে। সেখানেও ১৫ মিনিটের দুই অর্ধে কেউ পারছিল না গোল দিতে। ম্যাচ যখন প্রায় শেষের পথে, তখনই জ্বলে ওঠেন সানচেজ।

নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষে ৩০ মিনিটেরও খেলা হয়ে যাওয়ার পর চলছিল যোগ করা সময়ের খেলা। ঠিক তখন মাতেও দারমেইনের কাছ থেকে পাওয়া বলে নিখুঁত ফিনিশিংয়ে জয়সূচক গোল করেন অ্যালেক্সিস সানচেজ। যা শিরোপা এনে দেয় ইন্টারকে।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/আরআই-কে