পৃথিবী থেকে ধীরে ধীরে দূরে সরে যাচ্ছে উপগ্রহটি। তেমনটাই দাবি বিজ্ঞানীদের। পৃথিবী এবং মহাকাশের বিভিন্ন বিষয় পর্যবেক্ষণ এবং খুঁটিয়ে পরীক্ষা করে বিজ্ঞানীরা চাঁদের এই সরণ সম্পর্কে অবগত হয়েছেন। তারা উপলব্ধি করতে পেরেছেন, চাঁদ পৃথিবী থেকে দূরে সরে যাচ্ছে। 

বিজ্ঞানীদের হিসাব অনুযায়ী, বছরে পৃথিবীর সঙ্গে ৩.৮ সেন্টিমিটার করে দূরত্ব বৃদ্ধি করছে চাঁদ। নাসার প্যানেলের মাধ্যমে সেই তথ্য পৃথিবীর গবেষকেরা জানতে পেরেছেন।


১৯৬৯ সালে অ্যাপোলো অভিযানে চাঁদে যখন মহাকাশচারী পাঠিয়েছিল নাসা, সেই সময়েই চাঁদের মাটিতে তারা প্রতিফলক প্যানেল বসিয়ে রেখেছিল। তাতেই ধরা পড়েছে বছর বছর চাঁদের সরণ। কিন্তু কেন সরছে চাঁদ? কেনই বা তা নিয়ে পৃথিবীর বিজ্ঞানীরা মাথা ঘামাচ্ছেন? চাঁদের সঙ্গে পৃথিবীর দূরত্ব আরও বৃদ্ধি পেলে ভবিষ্যতে কী পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে?

বিজ্ঞানীদের অনুমান, চাঁদ যে ধীরে ধীরে পৃথিবীর সঙ্গে দূরত্ব বৃদ্ধি করছে, তার নেপথ্য রয়েছে পৃথিবীর মিলানকোভিচ চক্র। পৃথিবীতে আবহাওয়ার অস্বাভাবিক কোনও পরিবর্তনের জন্যও এই চক্রকে দায়ী করা হয়। বিজ্ঞানীরা দীর্ঘ পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে জানতে পেরেছেন, পৃথিবীর কক্ষপথ এবং অক্ষের অবস্থানে মাঝেমধ্যে কিছু তারতম্য হয়। যার প্রভাব পড়ে পৃথিবীতে সূর্যরশ্মির বিকিরণের উপরেও।

পৃথিবীর কোন অংশে কতটা সূর্যের আলো পড়ছে, সেই হিসাবে সামান্য বিচ্যুতিও আবহাওয়ার বড়সড় পরিবর্তন ডেকে আনতে পারে। মিলানকোভিচ চক্রের কারণেই এমনটা হয়ে থাকে।

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম / নাজাত