দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় পার্টি (জাপা)। তবে দলটি কোনো জোট নয়, এককভাবে নির্বাচন করবে।
 

বুধবার (২২ নভেম্বর) বিকেল সোয়া ৩টায় রাজধানীর বনানীতে জাপা চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান পার্টির মহাসচিব মো. মুজিবুল হক চুন্নু।
 


তিনি বলেন, ভোটাররা নির্বিঘ্নে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন। নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্ট মহল আমাদের এ বিষয়ে আশ্বস্ত করেছে। তাদের প্রতিশ্রুতিতে বিশ্বাস রেখে আমাদের চেয়ারম্যান ও বিরোধীদলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ (জিএম) কাদের নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। চেয়ারম্যানের নির্দেশে জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশ নেবে আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করছি।
 

নির্বাচন সামনে রেখে সব প্রস্তুতি প্রায় শেষ করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা সব সময় বলেছি, আমরা আস্থার পরিবেশ চাই। ভোটাররা যেন কেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে পারেন। নির্বাচন কমিশনসহ সংশ্লিষ্ট সব মাধ্যম থেকে আমরা আশ্বস্ত হয়েছি যে, নির্বাচন অবাধ, নিরপেক্ষ ও গ্রহণযোগ্য হবে।
 

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে চুন্নু বলেন, জাতীয় পার্টি কোনো জোটে যাবে না, ৩০০ আসনেই নির্বাচন করবে। দুপুর পর্যন্ত আমাদের প্রায় এক হাজার ৪০০টি মনোনয়ন ফরম বিক্রি হয়েছে। প্রায় প্রত্যেক আসনেই আগ্রহী একাধিক প্রার্থী মনোনয়ন ফরম কিনেছেন। আমরা আমাদের ঘোষণা অনুযায়ী এককভাবেই নির্বাচন করবো।
 

তিনি বলেন, আমরা কারো সঙ্গে আসন সমঝোতায় যাবো না। জাতীয় পার্টি স্বচ্ছ রাজনীতি করে, পার্টির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অপবাদ নেই। গেলো ৩৩ বছর দেশের মানুষ আমাদের রাজনীতি পছন্দ করেছে। আমরা আশা করছি, ৩০০ আসনেই আমরা শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবো।


 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-৪৮৭


সূত্র : জাগোনিউজ