নির্বাচন কমিশনার আনিছুর রহমান বলেছেন, নির্বাচনে কে এলো আর কে এলো না সেটি আমাদের দেখার বিষয় নয়। কাউকে নির্বাচনে আনা আমাদের দায়িত্ব নয়। তারা (বিএনপি) নির্বাচনে আসতে চাচ্ছে, বিভিন্ন মাধ্যমে এমন কথা শুনছি। যদি তারা পর্দার অন্তরালে আলাপ-আলোচনা করে জোটবদ্ধ হয় তাহলে বিষয়টি (ভোটের তারিখ) পেছানোর সুযোগ আছে।

বুধবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে কুমিল্লা সার্কিট হাউসের সামনে কুমিল্লা, চাঁদপুর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক, রিটার্নিং কর্মকর্তা ও পুলিশ সুপারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও নির্বাচন কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে তিনি এসব কথা বলেন।


আনিছুর রহমান বলেন, নির্বাচনে কত পার্সেন্ট ভোট পড়ল সেটা বিষয় নয়। নির্বাচন নির্বাচনের গতিতে হবে। সংবিধানে লেখা নেই কত ভোট কাস্ট হতে হবে। তবে সময়মতো নির্বাচন না হলে সংবিধানে একটা শূন্যতা তৈরি হবে। তাই সময়মতো নির্বাচন হবে। কেউ নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে পারবে না। আমরা বলে দিয়েছি যত পার্সেন্ট কাস্ট হবে তা দিয়েই ফলাফল ঘোষণা করা হবে।

তিনি বলেন, নির্বাচন বাংলাদেশে সবসময়ই উৎসবমুখর হয়। তবে সেটি বেশি স্থানীয় সরকার নির্বাচনে। আমরা আগে থেকে আহ্বান করে যাচ্ছি। নির্বাচনে সবাই আসুক। নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করা যাবে না।

কুমিল্লার জেলা প্রশাসক মু. মুশফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জেলা প্রশাসক মো. শাহগীর আলম, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, কুমিল্লার পুলিশ সুপার আব্দুল মান্নান, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার মোহাম্মাদ শাখাওয়াত হোসেন ও চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম।

 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-৪৮৮


সূত্র : ঢাকাপোষ্ট