সিলেট সিটি করপোরেশনের সদ্য সাবেক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর বাসায় ককটেল নিক্ষেপের ঘটনায় থানায় কোন অভিযোগ হয়নি।

বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত আরিফুল হক চৌধুরী কিংবা তার পরিবারের পক্ষ থেকে কেউ থানায় অভিযোগ করেননি বলে জানিয়েছেন মহানগর পুলিশের উপকমিশনার আজবাহার আলী শেখ।


তবে আরিফুল হক চৌধুরীর পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ করা না হলেও তদন্তে নেমেছে পুলিশ। ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনার সাথে জড়িত তিন যুবকের পরিচয় সনাক্তে কাজ শুরু করেছে তারা। সিসি টিভির ক্যামেরায় ধারণ হওয়া চিত্রে দেখা গেছে ককটেল নিক্ষেপের সাথে তিন যুবক জড়িত ছিলেন। এর মধ্যে দু’জন ককটেল নিক্ষেপ করে এবং অপর একজন মোবাইল দিয়ে ভিডিও চিত্র ধারণ করছেন। নিক্ষেপকৃত ককটেলের একটি আরিফুল হক চৌধুরীর বাসার প্রধান ফটকে এবং অপরটি বাসার ভেতরে বিস্ফোরিত হয়। ককটেল বিস্ফোরণের পর ওই তিন যুবক দৌঁড়ে পালিয়ে যান।

সিলেট মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার আজবাহার আলী শেখ জানান, ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় আরিফুল হক চৌধুরী কিংবা তার পরিবারের পক্ষে কেউ কোন অভিযোগ করেনি। তবে এ ঘটনার সাথে কারা জড়িত ছিল তা সনাক্তে পুলিশ কাজ করছে।


সিলেটভিউ২৪ডটকম/শাদিআচৌ/এসডি-৫০৫