চলতি মৌসুমে অন্তত ৩৮ লাখ বিয়ের সম্ভাবনা রয়েছে। এই বিপুল সংখ্যক বিয়ের পেছনে খরচ হবে প্রায় ৫ লাখ কোটি রুপি। এটি বড় অবদান রাখবে দেশের অর্থনীতিতে। বিয়ে নিয়ে মঙ্গলবার এমন পরিসংখ্যান দিয়েছে কনফেডারেশন অফ অল ইন্ডিয়া ট্রেডার্স (সিএআইটি)। এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য জানিয়েছে টাইমস অব ইন্ডিয়া।

ভারতে বুধবার (২৩ নভেম্বর) থেকে শুরু হচ্ছে বিয়ের মৌসুম। এটি চলবে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত। উৎসবের অর্থনীতিকে সামনে রেখে উজ্জীবিত হচ্ছেন দেশটির ব্যবসায়ীরা। আশা করা হচ্ছে, ভারতজুড়ে এই মৌসুমে ৩৮ লাখ বিয়ে হতে পারে। পণ্য, সার্ভিস ও খুচরাবাজার মিলিয়ে যার আর্থিক মূল্য দাঁড়াতে পারে প্রায় পাঁচ লাখ কোটি রুপি।


গত বছরের তুলনায় এই বছর বিয়ের সংখ্যা উল্লেখযোগ্য হারে বেশি। ২০২২ সালে ৩২ লাখ বিয়ের ব্যবসায়িক মূল্য ধরা হয়েছিল প্রায় চার লাখ কোটি রুপি। এই বছর এই পরিমাণ ধরা হয়েছে ৪ লাখ ৭৪ হাজার কোটি রুপি।

বিয়ের মৌসুমে ভালো ব্যবসা হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় এরই মধ্যে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছেন ভারতের ব্যবসায়ীরা। ক্রেতাদের সম্ভাব্য ভিড় সামলাতে নানা ধরনের ব্যবস্থা নিচ্ছেন তারা।

ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন, বিয়ের মৌসুমে সাধারণত গহনা, শাড়ি, লেহেঙ্গা, আসবাবপত্র, তৈরি পোশাক, জামাকাপড়, জুতা, বিয়ে ও শুভেচ্ছার কার্ড, মিষ্টি, ফল, পূজার সামগ্রী, মুদিপণ্য, খাদ্যশস্য, সাজগোজের উপকরণ, বাড়ির সাজসজ্জার সামগ্রী, বৈদ্যুতিক জিনিসপত্র, নানা ধরনের উপহার সামগ্রী প্রভৃতির চাহিদা বেশি থাকে।

এছাড়াও তাঁবু সাজানো, ফুলের সাজসজ্জা, ক্রোকারিজ, ক্যাটারিং, ভ্রমণ সেবা, ক্যাব সেবা, স্বাগত জানানো পেশাদার দল, ফটোগ্রাফার, ভিডিওগ্রাফার, অর্কেস্ট্রা, ডিজে, শোভাযাত্রার জন্য ঘোড়া, ওয়াগনসহ নানা ধরনের সেবায় এবার বড় ব্যবসা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

ভারতের বিভিন্ন রাজ্যের ৩০টি শহরের বাণিজ্য সংস্থা এবং পণ্য ও পরিষেবার স্টেক হোল্ডারদের কাছে থেকে এসব তথ্য সংগ্রহ করেছে ব্যবসায়ী সংগঠন সিএআইটি। সংস্থাটির সেক্রেটারি জেনারেল প্রবীণ খান্ডেলওয়াল বলেন, 'এই সময়ের মধ্যে (২৩ নভেম্বর থেকে ১৫ ডিসেম্বর) ৩৮ লাখ বিয়ে হবে বলে অনুমান করা হয়েছে। এর জন্য প্রায় ৪.৭৪ লাখ কোটি রুপি খরচ হতে পারে। এটি ভালো লক্ষণ। বিশেষত দেশের অর্থনীতি এবং খুচরা ব্যবসার জন্য এটি ভালো দিক।'

খান্ডেলওয়াল জানিয়েছেন, শুধুমাত্র দিল্লিতেই এই মরশুমে ৪ লাখের বেশি বিয়ের আশা করা হচ্ছে। এটির মাধ্যমে ১.২৫ লাখ কোটি টাকার ব্যবসা হতে পারে।

খান্ডেলওয়াল জানিয়েছেন, এর মধ্যে ৩ লাখ রুপি খরচের বিয়ে হতে পারে অন্তত ৭ লাখ। এছাড়া ছয় লাখ খরচের বিয়ে হতে পারে ৮ লাখ এবং দশ লাখ রুপি খরচের বিয়ে হতে পারে অন্তত ১০ লাখ।

তিনি জানিয়েছেন, ১৫ থেকে ২৫ লাখ রুপি খরচের বিয়ে হতে পারে যথাক্রমে ৭ ও ৫ লাখ। অন্যদিকে ৫০ লাখ থেকে এক কোটি রুপির বিয়ে হতে পারে ৫০ হাজার।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক