রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।
 

বৃহস্পতিবার (২৩ নভেম্বর) দুপুরে তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এক বিফ্রিংয়ে তিনি এ তথ্য জানান।


আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, আজ রংপুরের ৩৩টি, রাজশাহীতে ৩৯টিসহ মোট ৭২টি আসনের প্রার্থী চূড়ান্ত করা হয়েছে। আমরা সব আসনে মনোনয়ন চূড়ান্ত না হওয়ার পর্যন্ত ফল প্রকাশ করব না। আমরা একসঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা করব।
 

শুক্রবার (২৪ নভেম্বর) সকাল ১০টা পর্যন্ত মনোনয়ন বোর্ডের সভা মুলতবি করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আজ আমাদের মনোনয়ন বোর্ডে রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের বাইরে অন্য কোনো সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে আমার জানা নেই। বর্তমান সংসদ সদস্য কয়েকজন বাদ পড়ছেন। এ মুহূর্তে আমি তাদের নাম বলতে পারছি না, তবে বাদ পড়ছেন। প্রার্থী বাছাইয়ের ক্ষেত্রে জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্য ব্যক্তিকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে। আগামী ২৫ নভেম্বর (শনিবার) প্রার্থীদের নাম প্রকাশ করা হবে।
 

বিদ্রোহীদের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আগে আমরা দেখি কারা বিদ্রোহী হয়, তারপর সিদ্ধান্ত নেব।’

‘নির্বাচন ঘিরে সারাদেশে একটি উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। জোট হবে বিভিন্নভাবে। কার সঙ্গে কার জোট হবে, কোথায় গিয়ে ঠেকবে, এখন বলা মুশকিল। নির্বাচনের আগে জোট হতেও পারে, সময় আছে। এমনও হতে পারে যা আপনি ভাবছেন না, আমিও ভাবছি না।’
 

বৃহস্পতিবার সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মনোনয়ন বোর্ডের সভা শুরু জয়। সভার শুরুতে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নির্বাচন স্বচ্ছ করার জন্য যা যা দরকার আমরা সব করব।

তিনি বলেন, ‘নির্বাচন চলাকালীন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, প্রশাসক সম্পূর্ণ নির্বাচন কমিশনের নিয়ন্ত্রণে থাকবে। তফসিল ঘোষণার পর থেকে কোনো সরকারি কর্মকর্তার বদলি নির্বাচন কমিশনারের অনুমতি ছাড়া করা যাবে না। নির্বাচন কমিশন চাইলে পরিবর্তন করা যাবে।


 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-৫১৭


সূত্র : ঢাকাপোষ্ট