লেবাননের দক্ষিণাঞ্চলের বেইত ইয়াহুন গ্রামে ইসরায়েলের বিমান হামলায় ইরান-সমর্থিত লেবাননের সশস্ত্রগোষ্ঠী হিজবুল্লাহর অন্তত পাঁচ যোদ্ধা নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে হিজবুল্লাহর জ্যেষ্ঠ এক সদস্যের ছেলেও রয়েছেন।
 

ইসরায়েলি হামলায় লেবাননে প্রাণহানির ঘটনার বিষয়ে অবগত তিনটি সূত্র ও হিজবুল্লাহ এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।


বুধবার গভীর রাতে হিজবুল্লাহ ইসরায়েলি হামলায় তাদের পাঁচ যোদ্ধা নিহত হয়েছেন বলে ঘোষণা দিয়েছে। গত ৭ অক্টোবর হামাসের সাথে ইসরায়েলের যুদ্ধ শুরুর পর ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে ইসরায়েলে হামলা চালিয়ে আসছে হিজবুল্লাহ। তখন থেকে উভয়পক্ষে অনেকের প্রাণহানি ঘটেছে।
 

বুধবারের হামলায় নিহতদের মধ্যে লেবাননের সংসদ সদস্য ও হিজবুল্লাহর জ্যেষ্ঠ নেতা মোহাম্মদ রাদের ছেলে আব্বাস রাদ রয়েছেন। হিজবুল্লাহর জ্যেষ্ঠ নেতা মোহাম্মদ রাদের বিরুদ্ধে ২০১৯ সালে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল যুক্তরাষ্ট্র।
 

হিজবুল্লাহর দুটি সূত্র বলেছে, দক্ষিণ লেবাননের বেইত ইয়াহুন গ্রামে ইসরায়েলি বিমান হামলায় অন্তত পাঁচজন নিহত হয়েছেন।

গত ৭ অক্টোবর গাজা উপত্যকার ক্ষমতাসীনগোষ্ঠী হামাসের সাথে ইসরায়েলের যুদ্ধ শুরুর পর থেকেই ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর সাথে আন্তঃসীমান্ত সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে হিজবুল্লাহ। তখন থেকে প্রত্যেক দিনই ইসরায়েলের উত্তরাঞ্চলীয় সীমান্তে সামরিক বাহিনীর চৌকি, সামরিক ঘাঁটি ও বেসামরিক স্থাপনা এবং বসতি লক্ষ্য করে হামলা চালিয়ে আসছে এই গোষ্ঠী।
 

সীমান্তে হিজবুল্লাহ এবং ইসরায়েলি বাহিনীর সংঘাত গত কয়েক দিনে তীব্র আকার ধারণ করেছে। উভয়পক্ষের মাঝে পাল্টাপাল্টি হামলা-পাল্টা হামলা অব্যাহত রয়েছে। গাজা উপত্যকায় চলমান যুদ্ধ আঞ্চলিক সংঘাতে রূপ নিতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। ইসরায়েলের সাথে সংঘাতে এখন পর্যন্ত হিজবুল্লাহর ৮৫ যোদ্ধা নিহত হয়েছেন। একই সময়ে লেবাননের কয়েকজন বেসামরিক নাগরিকও ইসরায়েলি হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন।


 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-৫২৯


সূত্র : ঢাকাপোষ্ট