দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে ঘিরে হবিগঞ্জের ৪টি আসনের আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের মধ্যে দেখা দিয়েছে উৎসব-আমেজ। প্রার্থীরা দলীয় মনোনয়ন পেতে শুরু করেছেন দৌড়ঝাঁপ। অনেক প্রার্থীরা ছুটছেন কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে, করছেন জোর লবিং-তদবির।
 

জেলার ৪টি আসন থেকে ৩২ জন প্রার্থী আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন। ইতোমধ্যে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউর আওয়ামী লীগের কার্যালয় থেকে এসব প্রার্থীরা তাদের মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করার পর জমও দিয়েছেন।
 


আওয়ামী লীগের মনোনয়ন সংগ্রহকারী প্রার্থীরা হলেন, হবিগঞ্জ-১ (বাহুবল-নবীগঞ্জ) আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য শাহ মোহাম্মদ গাজী মিলাদ, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট মোঃ আলমগীর চৌধুরী, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ডাঃ মুশফিক হুসেন চৌধুরী, সংরক্ষিত আসনের সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া কেয়া চৌধুরী, কেন্দ্রীয় যুবলীগের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল মুকিত চৌধুরী, সহকারী এর্টনী জেনারেল শেখ মোহাম্মদ মাজু ও যুক্তরাষ্ট্র যুবলীগের সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক শেখ জামাল হোসেন ও ডাঃ নাজরা চৌধুরী।
 

হবিগঞ্জ-২ (বানিয়াচং-আজমিরীগঞ্জ) আসনে জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান সংসদ সদস্য এডভোকেট মোঃ আব্দুল মজিদ খান, বানিয়াচং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন মাস্টার, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আবু বকর ছিদ্দিকী, জেলা যুবলীগের সভাপতি ও বানিয়াচং উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল কাশেম চৌধুরী, সাবেক সংসদ সদস্য এডভোকেট শরীফ উদ্দিন আহমেদের ছেলে জেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট ময়েজ উদ্দিন শরীফ রুয়েল, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারন সম্পাদক এডভোকেট লুৎফুর রহমান চৌধুরী, আজমিরীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মর্ত্তুজা হাসান, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি হুমায়ূন কবীর রেজা, সাদিকুর রহমান পরাগ, ব্যারিস্টার এনামুল হক, বানিয়াচং উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আহাদ মিয়া ও এডভোকেট আবুল আজাদ।
 

হবিগঞ্জ-৩ (হবিগঞ্জ সদর-লাখাই ও শায়েস্তাগঞ্জ) আসনে জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও বর্তমান সংসদ সদস্য এডভোকেট মোঃ আবু জাহির, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আবুল হাশেম মোল্লা মাসুম, হবিগঞ্জ সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মোতাচ্ছিরুল ইসলাম, প্রকৌশলী সুশান্ত দাশ গুপ্ত ও ব্যারিস্টার রুহুল আমিন মোল্লা।

হবিগঞ্জ-৪ (মাধবপুর-চুনারুঘাট) আসনে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মোঃ মাহবুব আলী এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ জাকির হোসেন চৌধুরী অসীম, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের উপ-তথ্য ও গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক শেখ মিসির আলী, চুনারুঘাট উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি এডভোকেট আকবর হোসেন জিতু, জেলা আওয়ামী লীগের তথ্য, গবেষনা বিষয়ক সম্পাদক এনামুল হক মোস্তাফা শহীদ রানা ও আওয়ামীলীগ নেতা আরিফুল হাই রাজীব।
 

গত শনিবার (১৮ নভেম্বর) বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউতে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম বিক্রি শুরু হয়। এরপর থেকে প্রার্থীরা মনোনয়ন ফরম সংগ্রহ ও জমা দিতে করতে ঢাকায় অবস্থান করেন। পাশাপাশি নৌকা প্রতীক পেতে কেন্দ্রীয় নেতাদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন প্রার্থীরা। আবার অনেক প্রার্থীরাই চালাচ্ছেন জোর লবিং-তদবির। এদিকে, এবারের সংসদ নির্বাচনে কারা পাবেন নৌকার টিকিট এ নিয়ে জলছে জল্পনা ও কল্পনা। তবে সকল প্রার্থীরাই দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে আশাবাদী।


 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/জাকারিয়া/নাজাত/এসডি-৫৫৯