দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ‘ঢাকা-১০’ আসনে আওয়ামী লীগের হয়ে লড়বেন জনপ্রিয় নায়ক ফেরদৌস। তার নির্বাচনী প্রচারণায় প্রয়োজনে থাকার কথা জানিয়েছেন তার দীর্ঘদিনের বন্ধু কলকাতার আরেক জনপ্রিয় নায়িকা ঋতুপর্ণা। কলকাতার একটি সংবাদমাধ্যমে এ কথা বলেছেন ফেরদৌস। যেখানে তিনি জানিয়েছেন, নির্বাচনের খবরে টালিউডের অনেক তারকাই তাকে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন।

 


 

ফেরদৌস বলেন, টালিউডে আমার অনেক বন্ধু রয়েছেন। ঋতুপর্ণা (ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত) আমার খুব ভালো বন্ধু। ও তো বলেছে- প্রয়োজনে ঢাকায় এসে আমার জন্য ভোটের প্রচারও করবে। কলকাতায় যে কাণ্ড ঘটিয়েছিলাম, সেটা আমি ওকে মনে করিয়ে দিই।

 

 

২০১৯ সালে ভারতের লোকসভা নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন; সে কথাই ঋতুপর্ণাকে স্মরণ করিয়ে দেন ফেরদৌস।

এ বিষয়ে ফেরদৌস বলেন, ওই একটা ভুলের জন্য আমাকে প্রচুর ভুগতে হয়েছে। আমি এখনো ওই ঘটনার জন্য দুঃখপ্রকাশ করি। কারণ আমি তখন নিয়মকানুন জানতাম না। কলকাতায় দীর্ঘদিন কাজের ফলে আমি দুই বাংলারই কাছের মানুষ। যারা আমাকে নিয়ে গিয়েছিলেন, তারাও হয়তো আবেগের বশবর্তী হয়ে বিষয়টা খেয়াল করেননি। কলকাতা থেকে প্রায় দুবছর আমি দূরে ছিলাম। একাধিক সিনেমার প্রস্তাব ফিরিয়ে দিতে হয়েছিল।

 

 

২০০১ সালে ‘ওস্তাদ’ সিনেমায় প্রথমবার জুটি বেঁধে অভিনয় করেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত ও ফেরদৌস। এরপর এই দুই তারকার বন্ধুত্ব সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরও মজবুত হয়েছে। ঢাকায় আসলেই ফেরদৌসের কথা স্মরণ করেন ঋতুপর্ণা।

 

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/মিআচৌ