আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হতে সিলেটের ৬টি আসনে মনোনয়নপত্র জমা দেন ৪৭ জন। এসব প্রার্থীদের দাখিল করা মনোনয়নপত্র বাছাই শুরু হয়েছে। রবিবার (৩ ডিসেম্বর) সকাল ৯টা থেকে শুরু হওয়া বাছাই কার্যক্রম চলবে বিকাল চারটা পর্যন্ত।

 


দুপুর বারোটায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত, একাধিক সাবেক ও বর্তমান সাংসদের মনোনয়নপত্র বাতিল ঘোষণা করেছেন নির্বাচন কমিশন।

 

যাচাই বাছাই শেষে ৪ ডিসেম্বর বিকাল চারটার পর সিলেট জেলার বিভিন্ন আসনের প্রার্থীদের বিষয়ে জানাবে নির্বাচন কমিশন।


এরপর রিটার্নিং কর্মকর্তাদের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল ও নিষ্পত্তি কার্যক্রম চলবে ৫ থেকে ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত। প্রার্থিতা প্রত্যাহারের সুযোগ থাকছে ১৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত। ১৮ ডিসেম্বর প্রার্থীদের মধ্যে প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে। এদিন থেকেই প্রচারণা শুরুর সুযোগ পাবেন প্রার্থীরা। যা চলবে ২০২৪ সালের ৫ জানুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত। আর ৭ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ করা হবে।

 

সিলেট জেলার ৬ আসনে মনোনয়ন দাখিল করা দলগুলো হচ্ছে- আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি, তৃণমূল বিএনপি, ইসলামী ঐক্যজোট, ন্যাশনাল পিপলস পার্টি, বাংলাদেশ কংগ্রেস, জাকের পার্টি, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক জোট, গণফোরাম, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্ট ও বাংলাদেশ মুসলিম লীগ।


জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র সিলেটভিউ-কে জানায়, সিলেটের ৬টি আসন থেকে মনোনয়নপত্র দাখিল করা প্রার্থীদের মধ্যে আওয়ামী লীগের ৬ জন, জাতীয় পার্টির ৫ জন, তৃণমূল বিএনপি ৬ জন, ইসলামী ঐক্যজোটের ৪ জন, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির ৩ জন, বাংলাদেশ কংগ্রেসের ৩ জন, জাকের পার্টির ৩ জন, বাংলাদেশ সাংস্কৃতিক জোটের ২ জন, গণফোরামের ১ জন, কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের ১ জন, বাংলাদেশ ইসলামী ফ্রন্টের ১ জন, বাংলাদেশ মুসলিম লীগের ১ জন এবং স্বতন্ত্র ১১ জন।


সিলেটভিউ২৪ডটকম/পিডি