বিশ্বকাপ চলাকালীন জাতীয় দলের ক্রিকেটার নাসুম আহমদকে চড় মারার অভিযোগ তদন্ত চেয়ে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

 


রোববার (৩ ডিসেম্বর) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার আশরাফুর রহমান এই নোটিশ পাঠান।

 

চড় মারার ঘটনা প্রমাণিত হলে বিসিবিকে অভিযুক্ত জাতীয় দলের প্রধান কোচ হাথুরুসিংহের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে নোটিশে।

 

আইসিসির মেগা ইভেন্ট বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলকে নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা যেন শেষই হচ্ছে না। একের পর এক ম্যাচ হারায় পুরো আসরজুড়েই সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হয়েছে ক্রিকেটার, টিম ম্যানেজম্যান্ট থেকে শুরু করে ক্রিকেট বোর্ডও।

 

বিশ্বকাপে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল বাংলাদেশ। ন্যক্কারজনক এমন ঘটনা ঘটেছিল সেদিনই। সে ম্যাচে বিরতির সময় একাদশের বাইরে থাকা নাসুম আহমদ পানি নিয়ে মাঠে যেতে বলেন হাথুরু। সব কিছু গুছিয়ে পানি নিয়ে মাঠে যেতে সেই নাসুম আহমদের ৩০ সেকেন্ড দেরি হয়। এ কারণেই সেদিন নাসুম আহমদকে চড় মারেন হাথুরু। দেশের প্রথম শ্রেণীর একটি টেলিভিশন চ্যানেলে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

 


হাথুরুর এমন ব্যবহারে সেদিন সেই নাসুম আহমদ কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন বলেও জানানো হয় সেই প্রতিবেদনে।

 

এদিকে প্রধান কোচের এমন ব্যবহারের প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন দলের ট্রেইনার এবং বোলিং কোচ অ্যালান ডোনাল্ড। ম্যাচ শেষে ক্রিকেটাররাও এ ঘটনা জানতে পারেন।

 

এদিকে গায়ে হাত তোলায় সেই নাসুম উত্তেজিত হলে দুই সিনিয়র ক্রিকেটার তাকে শান্ত করেন। বোর্ড প্রেসিডেন্টকে জানাবেন বলেও আশ্বস্ত করেন। টেলিভিশন চ্যানেলে প্রকাশিত সেই প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়। এদিকে বিশ্বকাপে বাংলাদেশের খেলা দেখতে বোর্ড সভাপতি-সহ আরও কয়েকজন পরিচালক কলকাতায় গেলে সেখানে নাজুমুল হোসেন পাপনকে এ ঘটনার কথা জানানো হয়। তা জানতে পেরে বিসিবি সভাপতি হাথুরুকে নিজেকে আচরণ শুধরে নেওয়ার কথাও জানান বলে জানানো হয় সেই প্রতিবেদনে।


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/মিআচৌ

 


সূত্র : ঢাকা পোস্ট