রাজনগর উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এনামল হক চৌধুরীকে দলের সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ ও সকল পর্যায়ের পদ থেকে অব্যাহতি দিয়েছে মৌলভীবাজার জেলা বিএনপি।
 

উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদকের পদ এবং প্রাথমিক সদস্য পদসহ সকল পর্যায়ের পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।


জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক বকসি মিছবাউর রহমান স্বাক্ষরিত বিএনপির পেডে প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সোমবার বিকালে তা জানানো হয়।
 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, রাজনগর উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সদর ইউনিয়নের সদস্য এনামুল হক চৌধুরীর একটি পুরনো ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়। এতে দেখা যায় মৌলভীবাজার-৩ আসনের নবনির্বাচিত এমপি মোহাম্মদ জিল্লুর রহমান, উপজেলা চেয়ারম্যান শাহ জাহান খান ও টেংরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. টিপু খানসহ আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গসংগঠনের নেতাদের সাথে হাস্যোজ্জলভাবে মিছিলের প্রথম সারিতে। ছবিটি নির্বাচনের পরপরই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হয়।
 

এদিকে ওই ছবি জেলা বিএনপির নেতাদের নজরে দেয়া হলে তাকে দলের সকল পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়। সোমবার বিকালে জেলা বিএনপির পেডে দেয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে লেখা হয় ‘গতকাল ৭ই জানুয়ারী অনুষ্ঠিত প্রহসনের জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামীলীগ প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণা ও তার মিছিলে অংশগ্রহনের সুনির্দ্দিষ্ট প্রমানের ভিত্তিতে, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল, রাজনগর উপজেলা’র সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরী-কে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল, রাজনগর উপজেলার সাংগঠনিক সম্পাদক পদ থেকে অবিলম্বে পদচ্যুতি ও তার প্রাথমিক সদস্য পদসহ সকল পর্যায়ের পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হলো।’ তবে, যে ছবিটি প্রচার হয়েছে সেটি বিগত জেলা পরিষদ নির্বাচনের বলছেন সংশ্লিষ্টরা।
 

এব্যাপারে অব্যাহতি প্রাপ্ত জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এনামুল হক চৌধুরী বলেন, আমার বিরুদ্ধে চক্রান্ত হয়েছে। গত ২০২২ সালের জেলা নির্বাচনের ছবি এটি। সে সময় জেলা পরিষদের রাজনগরের সদস্য জিয়ার পক্ষে আমরা কাজ করেছিলাম। জাতীয় নির্বাচনের সময় আমি কারো পক্ষে যাইনি। আমি চক্রান্তের স্বীকার। কে বা কারা এটি নিয়ে ভাইরাল করেছে জানি না। দলের উপর মহলের দায়িত্বশীলরা বিষয়টি তদন্ত করবেন বলে আশাকরি।


 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/সোহেল/এসডি-২১১