রাজধানীর তেজগাঁও মোল্লাবাড়ি বস্তিতে অগ্নিকাণ্ড নাশকতা নাকি দুর্ঘটনা সেটি তদন্ত করে জানা যাবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি) কমিশনার মো. হাবিবুর রহমান।
 

তিনি বলেন, ‘অসতর্কতা নাকি বৈদ্যুতিক গোলযোগ থেকে আগুন লেগেছে সেটা ফায়ার সার্ভিস এবং আমাদের তদন্তে বেরিয়ে আসবে। তারপরও এই বস্তির মালিকানা নিয়ে আমরা জানার চেষ্টা করছি।’
 


শনিবার (১৩ জানুয়ারি) দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘এখনো অগ্নিকাণ্ডের সুস্পষ্ট কারণ নির্ধারণ করা যায়নি। ফায়ার সার্ভিস হয়তো এ বিষয়ে তদন্ত করে তাদের রিপোর্ট দিতে পারে। তারা তদন্ত করবে। এটি নাশকতা নাকি দুর্ঘটনা সে বিষয়টি তদন্ত করে বোঝা যাবে।’
 

তিনি বলেন, ‘বস্তিটির মালিকানা পার্শ্ববর্তী একটি বাড়ির মালিকের। তিনি এখানে কিছু বস্তির মতো ঘর করে ভাড়া দিতেন। এখান থেকে বের হওয়ার মতো তেমন কোনো রাস্তা নেই। বের হয়েই দেখা যায় রেললাইন। এখানে কোনো সড়কের সঙ্গেও সংযোগ নেই। এটা হচ্ছে সবচেয়ে বড় সমস্যা।’
 

এর আগে, শুক্রবার দিনগত রাত ২টা ২৩ মিনিটে আগুন লাগার খবর পায় ফায়ার সার্ভিস। ৩টা ৪০ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। আগুন নেভাতে ফায়ার সার্ভিসের ১৩টি ইউনিট কাজ করে। জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেন ফায়ার সার্ভিসের প্রধান অফিসের ডিউটি অফিসার এরশাদ হোসেন।
 

বিএফডিসি গেট সংলগ্ন এই বস্তিতে লাগা আগুনে পুড়ে দুইজন নিহত হয়েছেন। এছাড়া আরও কয়েকজনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহতদের দুজনকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়েছে।


 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-৩০০