বিদেশি শিক্ষার্থীদের তাইওয়ান সরকার বৃত্তির (স্কলারশিপ) ঘোষণা দিয়েছে। ভিনদেশের শিক্ষার্থীরা দেশটিতে বিনা খরচে স্নাতকোত্তর এবং পিএইচডি প্রোগ্রামে পড়ার সুযোগ পাবেন। স্নাতকোত্তর কোর্সের মেয়াদ দুই বছর। পিএইচডি তিন বছরের।


তাইওয়ানের এই বৃত্তির নাম ‘তাইওয়ান ইন্টারন্যাশনাল গ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রাম’। বাংলাদেশসহ বিশ্বের যেকোনা দেশের শিক্ষার্থীরা এ বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। আবেদন করা যাবে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (১ ফেব্রুয়ারি) পর্যন্ত।



তাইওয়ান ইন্টারন্যাশনাল গ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রাম তাইওয়ান এবং বিদেশের তরুণ একাডেমিকদের শিক্ষিত করার জন্য প্রোগ্রাম। এ বৃত্তিতে পড়াশোনার মাধ্যম ইংরেজি।


তাইওয়ান ইন্টারন্যাশনাল গ্র্যাজুয়েট প্রোগ্রামের সুযোগ-সুবিধা

 

-পুরো টিউশন ফ্রি
-বৃত্তি হিসেবে মাসে ২৮ হাজার তাইওয়ান ডলার (১৪ জানুয়ারি ১ তাইওয়ান ডলার ৩টাকা ৫৩ পয়সা ধরে বাংলাদেশি মুদ্রায় ৯৮ হাজার ৭০৩ টাকা)
-বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রেশন ফি প্রদান করবে
-যাতায়াতের বিমানভাড়া
-আবাসন সুবিধা
-স্বাস্থ্য বিমা।

বৃত্তি পাওয়ার যোগ্যতা

-স্নাতকোত্তরের জন্য স্নাতক (বিজ্ঞানসম্পর্কিত বিষয়ে ডিগ্রিধারী হতে হবে)
-পিএইচডির জন্য স্নাতকোত্তর (বিজ্ঞানসম্পর্কিত বিষয়ে ডিগ্রিধারী হতে হবে)
-ইংরেজি ভাষার দক্ষ হতে হবে। (আইইএলটিএস/টোয়েফেল/স্যাট/জিআরই থাকতে হবে)
-যে প্রোগ্রামে আবেদন করবেন, সেই প্রোগ্রামের অন্য শর্তাবলি পূরণ করতে হবে।


প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

-আবেদনকারীর পাসপোর্ট
-ছবি
-জীবনবৃত্তান্ত
-একাডেমিক পেপারস (সনদ এবং ট্রান্সক্রিপ্ট)
-তিনটি রেফারেন্স লেটার
-আবেদনকারীর সিভি
-ইংরেজি ভাষাদক্ষতার সনদ (আইইএলটিএস/টোয়েফেল/স্যাট/জিআরই/মিডিয়াম অব ইন্সট্রাকশন)
-একাডেমিক থিসিস পেপার (পিএইচডি)
-রিসার্চ প্রপোজাল (পিএইচডি)
-স্টেটমেন্ট অব পারপাস।
-অন্য কাগজপত্র (যদি থাকে)।

আবেদন যেভাবে

আবেদন করতে এবং বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন


সিলেটভিউ২৪ডটকম / মাহি / ডি.আর