অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে ভারতের জনপ্রিয় অভিনেতা ও বিজেপি নেতা মিঠুন চক্রবর্তীকে। আজ শনিবার সকালে একটি ছবির শুটিং চলাকালীন অসুস্থ বোধ করেন এই অভিনেতা। সেখান থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে।
 

মিঠুনের অসুস্থতার খবরে, ভারতের বেশ কিছু সংবাদমাধ্যম দাবি করেছে- স্ট্রোক করেছেন এই অভিনেতা। অনেকেই বলেছেন বুকে ব্যথা নিয়েই হাসপাতালে গেছেন তিনি।
 


তবে মিঠুনের পূত্রবধু মাদলসা শর্মা জানালেন ভিন্ন কথা। শ্বশুরের স্ট্রোক কিংবা বুকে ব্যাথার গুঞ্জনকে মিথ্যা বলে উড়িয়ে দিলেন তিনি।
 

আনন্দবাজারকে মাদলসা বলেন, ‘বুকে ব্যাথা, স্ট্রোক, এসবই ভুয়া কথা। রুটিন চেকআপের জন্যই আমার শ্বশুরকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। বর্তমানে তিনি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিচ্ছেন। অবস্থাও স্থিতিশীল।’
 

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে মিঠুনের ছেলে মহাক্ষয় চক্রবর্তীকে বিয়ে করেন মাদালসা। শনিবার সকাল থেকে সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে মিঠুনের অসুস্থ হওয়ার খবর। ‘শাস্ত্রী’ ছবির শুটিং চলাকালীন অসুস্থ বোধ করেন তিনি। ছবির প্রযোজক-অভিনেতা সোহম চক্রবর্তী তাকে নিয়ে যান হাসপাতালে।
 

জানা যায়, হাসপাতালে পৌঁছানোর পরে এমআরআই করা হয় অভিনেতার। বর্তমানে কলকাতার অ্যাপেলো হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তিনি।

 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-৮২৬


সূত্র : ঢাকাপোষ্ট