হবিগঞ্জ শহরে বিলুপ্ত প্রাণী লক্ষী প্যাঁচার ৩টি ছানা (বাচ্চা) কে উদ্ধার করা হয়েছে। পরে সেগুলোকে হস্তান্তর করা হয়েছে বন বিভাগের কাছে। সোমবার দুপুরে শহরের টাউন হল রোডস্থ খোয়াই থিয়েটার কার্যালয়ে বিন বিভাগের কর্মকর্তাদের হাতে ছানাগুলোকে তুলে দেয়া হয়। 

 


এসময় উপস্থিত ছিলেন, বন বিভাগের রেঞ্জ কর্মকর্তা তোফায়েল আহমেদ চৌধুরী, জিয়াউল হক রাজু, বাপা কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য তোফাজ্জল সোহেল, খোয়াই থিয়েটারের সহসভাপতি সাইফুর রহমান চৌধুরী পাপলু, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন খান, ফজলুল করিম, মর্তুজ আলী ও স্বপন রায় প্রমুখ।


এর আগে রোববার দিবাগত রাত ১১টার দিকে খোয়াই থিয়েটারের পিছনে পরিত্যক্ত অবস্থায় ওই ৩টি ছানাকে দেখতে পান নাট্যকর্মী জুবায়েদ হোসেন ও লিটন দাস। পরে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) এর সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল সোহেল এর পরামর্শক্রমে থিয়েটারকর্মীরা সেগুলোকে উদ্ধার করে খোয়াই থিয়েটার কার্যালয়ে নিরাপদে রাখে। সোমবার হবিগঞ্জ বন বিভাগের সঙ্গে যোগাযোগ সেগুলোকে তাদের হাতে হস্তান্তর করা হয়।

 

এ বিষয়ে রেঞ্জ কর্মকর্তা তোফায়েল আহমেদ বলেন, বাচ্চাগুলোর বয়স আনুমানিক ১৫ থেকে ২০ দিনের মধ্যে হবে। সঠিক পরিচর্চা করে ও উড়তে শিখলে এগুলোকে অবমুক্ত করা হবে। তোফাজ্জল সোহেল বলেন, লক্ষী পেঁচা এখন সচরাচর দেখা যায়না। জাতটি বিলুপ্ত প্রায় প্রাণীর তালিকায় রয়েছে। আমরা আশা করছি দ্রুতই বাচ্চা ৩টি সুস্থ হয়ে উঠবে। 

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ জাকারিয়া/ নাজাত