‘আমার সবকিছু ডয়ারে খাতায় লিখা। আমার মৃত্যুর পর বাড়িতে নিবায় না, আমারে চালিবন্দর দাও (দাহ) করবায়। দোকানে কাষ্টমারের মাল দিয়া দিও’। একটি সাদা কাগজে কথাগুলো লিখে সিলেটের বিশ্বনাথে আত্মহত্যা করেছেন লিটন দেব (২৮) নামের এক ব্যবসায়ী।

 


 

রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) রাতে সিলেটের বিশ্বনাথ পৌরশহরের কারিকোনায় নিজ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের ভিতরে গলায় ফাঁস দেন ওই ব্যবসায়ী। তিনি পৌর এলাকার ৮নম্বর ওয়ার্ডের জানাইয়া গ্রামের মৃত রণধীর দেবের ছেলে।

 

 


স্থানীয়রা জানান, রাতে বাসায় না যাওয়ায় সাড়ে ৯টার দিকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের খোঁজ নিয়ে ডাকাডাকি করে কোনো শব্দ না পেয়ে পুলিশের সাহায্যে সাটার উঠিয়ে লিটনের ঝুলন্ত মরদেহ দেখা যায়।

 

 


সাথে সাথে ওসমানীনগর সার্কেল আশরাফুজ্জামান পিপিএম ও থানার ওসি রমাপ্রসাদ চক্রবর্তি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এরপর পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী হাসপাতালের মর্গে লাশ প্রেরণ করে।

 

 

এ ব্যাপারে বিশ্বনাথ থানার এসআই দূর্গা কুমার দেব বলেন, মরদেহ উদ্ধারের পর যুবকের হাতের লেখা একটি চিরকুট পাওয়া গেছে। যেখানে কাউকে দায়ী করেননি তিনি। লাশ সোমবার ময়না তদন্ত শেষে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

 

 


সিলেটভিউ২৪ডটকম / ডি.আর