ভিসাপ্রত্যাশীদের সব ধরনের প্রতারণা ও অবৈধ লেনদেন হতে বিরত থাকতে সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে নিয়মিত কাজ করে যাবে ভিএফএস গ্লোবাল। বুধবার (২৭ মার্চ) প্রতিষ্ঠানটি থেকে পাঠানোর এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।


ভিএফএস গ্লোবাল বিবৃতিতে বলেছে, ভিসা আবেদন প্রক্রিয়ায় বিভিন্ন রাষ্ট্রের সহযোগী হিসেবে ভিএফএস গ্লোবাল প্রাশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে। এ কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী আবেদন ফরমসমূহ গ্রহণ ও ডকুমেন্ট সংরক্ষণ, বায়োমেট্রিক গ্রহণ এবং অ্যামবেসি/দূতাবাস কর্তৃক সিদ্ধান্ত নেওয়ার পর নিরাপদভাবে পাসপোর্ট সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির কাছে ফেরত দেওয়া। ভিএফএস গ্লোবাল অ্যাপয়ন্টমেন্টের প্রাপ্যতা নিয়ন্ত্রণ করে না। ভিএফএস যেসব রাষ্ট্রকে সেবা দিয়ে থাকে এই অ্যাপয়ন্টমেন্ট সংশ্লিষ্ট রাষ্ট্র দ্বারা নিয়ন্ত্রিত এবং শুধু তারাই প্রদান করে থাকে। ভিসা অ্যাপয়ন্টমেন্টের প্রাপ্যতা, আবশ্যকীয় ডকুমেন্টসমূহ এবং ভিসা আবেদনের সিদ্ধান্ত সম্পূর্ণ সংশ্লিষ্ট রাষ্ট্রের, এবং ভিসা প্রসেসের সময়ও সম্পূর্ণ তাদের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত। ভিএফএস গ্লোবালের এসব ক্ষেত্রে কোনো ধরনের ভূমিকা নেই।



ভিসা অ্যাপয়ন্টমেন্ট সম্পূর্ণ ফ্রি এবং শুধুমাত্র www.vfsglobal.com এই ওয়েবসাইটে আগে এলে আগে পাবেন ভিত্তিতে পাওয়া যাবে।


করোনা মহামারি পরবর্তীতে সীমিত সংখ্যায় অ্যাপয়ন্টমেন্ট পাওয়ায় সব ধরনের ভিসা ক্যাটাগরিতে বিশেষ করে ওয়ার্কার ভিসা পাওয়ার ক্ষেত্রে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী ও অপরাধী চক্র বা কালোবাজারী পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে অর্থের বিনিময়ে ভিসা অ্যাপয়ন্টমেন্টের প্রতিশ্রুতি প্রদান করছে। ভিএফএস গ্লোবাল এ ধরনের অনেক ভুয়া ওয়েবসাইট, সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টস বা পেজ রিপোর্ট করে বন্ধ করেছে। এসব অপরাধী চক্র দাবি করে অর্থের বিনিময়ে অ্যাপয়ন্টমেন্টের ব্যবস্থা করা যায়, প্রতারণাপূর্বক ভিএফএস গ্লোবালের নাম ব্যবহার করে ভিসাপ্রত্যাশীদের কাছে অবৈধ ও অপরাধমূলক উপায়ে অর্থ আদায় করে।


দায়িত্বশীল সেবা প্রদানকারী হিসেবে ভিএফএস গ্লোবাল সব সময় ভিসাপ্রত্যাশীদের সব ধরনের প্রতারণা ও অবৈধ লেনদেন হতে বিরত থাকতে সচেতনতা বাড়ানোর লক্ষ্যে নিয়মিত কাজ করে যাবে। ভিসাপ্রত্যাশীদের কাছে আবেদন থাকবে তারা যেন সতর্কতার সঙ্গে সময় থাকতে আবেদন করেন যাতে নির্বিঘ্নে কাঙ্ক্ষিত ভিসা পেতে সমস্যা না হয়।

 

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ নাজাত