পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর ভারতের অংশ। তা ভারতের সঙ্গে যুক্ত করার অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি পশ্চিমবঙ্গের সেরামপুরে এক জনসভায় এমন অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন।
 

বিজেপির গুরুত্বপূর্ণ এই নেতা আরও বলেন, সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করার পর জম্মু ও কাশ্মীরে শান্তি ফিরেছে। এ সময়ে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ‘আজাদি’ স্লোগান প্রতিধ্বনিত হচ্ছে। এ খবর দিয়েছে ভারতের প্রভাবশালী পত্রিকা হিন্দুস্তান টাইমস। এতে বলা হয়, পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে সহিংস প্রতিবাদ বিক্ষোভের মধ্যে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ প্রতিবেশীর কাছ থেকে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরকে ফিরিয়ে নেয়ার কথা বলেছেন। কংগ্রেস নেতা মনি শঙ্কর আয়ার সম্প্রতি পাকিস্তানের পারমাণবিক শক্তি নিয়ে একটি মন্তব্য করেছেন।
 


তাতে তিনি বলেছেন, ভারতের উচিত পারমাণবিক শক্তিধর পাকিস্তানকে অবশ্যই শ্রদ্ধা করা। মনি শঙ্করের ওই বক্তব্য ভাইরাল হয়েছে।

এর সমালোচনা করে অমিত শাহ বলেন, দেশটির কাছে বোমা থাকা সত্ত্বেও পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর ফিরিয়ে নেবে ভারত।
 

তিনি আরও বলেন, মনি শঙ্কর আয়ারের মতো কংগ্রেস নেতারা বলেন, তাদের (পাকিস্তান) কাছে পারমাণবিক বোমা থাকার কারণে এটা করা যাবে না। কিন্তু আমি বলতে চাই, পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীর হলো ভারতের অংশ এবং আমরা তা নিয়ে নেবো।
 

বিজেপির এই নেতা প্রচারণায় আরও বলেন, ‘জিহাদের’ জন্য ভোট এবং ‘বিকাশের’ জন্য ভোটের মধ্যে পছন্দ বাছাই করে নিতে হবে তৃণমূল শাসিত পশ্চিমবঙ্গকে। ওদিকে আসামের মুখ্যমন্ত্রী হিমান্ত বিশ্বশর্মা দাবি করেছেন বিজেপি যদি লোকসভায় কমপক্ষে ৪০০ আসনে বিজয়ী হয়, তাহলে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরকে ভারতের সঙ্গে যুক্ত করা হবে। তিনি ঝাড়খন্ডে এক নির্বাচনী জনসভায় এ মন্তব্য করেন।
 

তিনি আরও বলেন, তার দল ‘শ্রীকৃষ্ণ জন্মভূমি’ মন্দির এবং ‘জ্ঞানভাপি’ মন্দির নির্মাণ করবে। বাস্তবায়ন করবে ইউনিফরম সিভিল কোড। রিপোর্টে আরও বলা হয়, বিদ্যুতে ট্যাক্স কমিয়ে দেয়া এবং ভর্তুকি কর্তনের প্রতিবাদে পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে প্রতিবাদ বিক্ষোভ হচ্ছে। সেখানে বিক্ষোভকারীদের ওপর সোমবার পাকিস্তানের আধাসামরিক রেঞ্জাররা গুলি করেছে।



 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-২০৭৭


সূত্র : মানবজমিন