যুক্তরাজ্য সম্প্রতি বিদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য একটি স্নাতক ভিসা চালু করেছে, যা বিদেশী শিক্ষার্থীদের কোর্স শেষ করার পরেও কমপক্ষে ২ বছর দেশে থাকার সুযোগ দিবে।


এই ভিসার জন্য যোগ্যতা বর্তমানে যুক্তরাজ্যে বসবাসরত ছাত্রদের জন্য, যারা হয় স্টুডেন্ট ভিসা বা টায়ার ৪  অর্থাৎ সাধারণ স্টুডেন্ট ভিসাধারী, যারা যুক্তরাজ্যে স্নাতক ডিগ্রী, স্নাতকোত্তর ডিগ্রী, বা একটি নির্দিষ্ট ন্যূনতম সময়ের জন্য অন্য কোন কোর্স শেষ করেছেন, বা যাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান তাদের স্নাতক নিশ্চিত করেছে।



যদিও এই ভিসার আদর্শ সময়কাল প্রায় ২ বছর, পিএইচডি বা অন্যান্য ডক্টরাল ডিগ্রী সম্পন্ন ব্যক্তিরা প্রায় ৩ বছর থাকতে পারবেন। স্নাতক ভিসার এক্সটেনশন অনুমোদিত নয়, তবে আবেদনকারীরা স্নাতক ভিসা কে আরেকটি  ভিন্ন ভিসা বিভাগে স্থানান্তর করতে পারে, যেমন একটি দক্ষ কর্মী ভিসায়।


তবে তাদের স্টুডেন্ট ভিসা বা টায়ার 4 (সাধারণ) স্টুডেন্ট ভিসার মেয়াদ শেষ হওয়ার আগে আবেদন করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। একটি বিশ্ববিদ্যালয় বা কলেজের মতো শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, স্টুডেন্ট বা টায়ার 4 (সাধারণ) স্টুডেন্ট ভিসার অধীনে ডিগ্রী সমাপ্তির হোম অফিসকে অবহিত করলেই আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে। আবেদন করার আগে স্নাতক বা প্রশংসাপত্র প্রাপ্তি পর্যন্ত অপেক্ষা করা লাগবে না।


আবেদনকারীদের অবশ্যই নিশ্চিত করতে হবে যে আবেদন করার সময় তাদের কাছে সমস্ত প্রয়োজনীয় নথি রয়েছে এবং ফলাফল জানাতে সাধারণত প্রায় ৮ সপ্তাহ সময় নেয় কর্তৃপক্ষ। আবেদনের ফি হলো ৮২২ ডলার, এবং স্বাস্থ্যসেবার জন্য যুক্তরাজ্যে প্রতি বছর ১০৩৫ ডলার খরচ হয়।


ডাক্তার, নার্স সহ স্বাস্থ্যসেবা পেশাদাররা এবং যারা স্বাস্থ্য সেবায় জড়িত তাদের হেলথ অ্যান্ড কেয়ার ওয়ার্কার ভিসার জন্য উত্সাহিত করা হয়।


আবেদনকারীরা যুক্তরাজ্য অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তাদের আবেদন জমা দিতে পারেন।



সিলেটভিউ২৪ডটকম /নাজাত