গত ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশের তিন সংস্করণের নেতৃত্ব তুলে দেয় হয় নাজমুল হোসেন শান্তকে। এরপর দেশের মাটিতে শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দুটি সিরিজ খেলে টাইগাররা। এরমধ্যে লঙ্কানদের সঙ্গে ওয়ানডে ও জিম্বাবুরে বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতে জয় পায় শান্তর দল। তবে সিরিজগুলোতে নেতৃত্বে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি শান্ত। উল্টো ব্যাট হাতেও নিজের আগের ফর্ম হারিয়ে ফেলেন তিনি।
 

ফলে ক্রিকেট বিশ্লেষক ও নেটিজেনদের সমালোচনার মুখে পড়তে হয় তাকে। এবার শান্তর বাজে পারফরম্যান্স নিয়ে মুখ খুলেছেন জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুল। তার মতে, বাঁহাতি ব্যাটারকে একাদশের বাইরে রেখে সাকিব আল হাসানকে নেতৃত্ব আনার পরামর্শ।


টি-টোয়েন্টিতে শান্তর স্ট্রাইকরেট ১০৯.৮২। যেটা এই সংস্করণের সঙ্গে বেমানান বলে মনে করেন আশরাফুল। দলের ভালোর জন্য আপাতত একাদশে শান্তর জায়গায় তানজিদ হাসান তামিমকে দেখতে চান সাবেক এই অধিনায়ক।
 

গণমাধ্যমকে আশরাফুল বলেন, ‘শান্ত নিজে থেকে বিশ্রাম নিয়ে অন্য কাউকে সুযোগ করে দিতে পারে। আমি রাতারাতি একাদশে পরিবর্তন আনার পাক্ষে না। তারপরও আমার মনে হয় তানজিদ তামিমকে নিয়ে আসা যেতে পারে। ম্যানেজমেন্ট সাহস করতে পারছে না। তারা চাইছে একাদশে সাত ব্যাটসম্যান খেলুক। সেহেতু একাদশে একটাই পরিবর্তন হতে পারে। শান্তর জায়গায় তামিম খেলতে পারে।’
 

‘শান্ত একাদশে না থাকলে সাকিব অধিনায়কত্ব করতে পারে। কারণ তাসকিন তো ইনজুরিতে আছে। অধিনায়ক করার জন্য সাকিবকে ম্যানেজমেন্টের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা যেতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে একটা পরিবর্তনই আনা যেতে পারে। শান্তর একটু বিশ্রাম প্রয়োজন। এমন অবস্থায় তার বাইরে থেকে খেলা দেখা প্রয়োজন।

‘এই সংস্করণে শান্তর বাজে সময় যাচ্ছে। তাকে বিপিএলেও সবগুল ম্যাচ খেলানো হয়েছে। এখানেই বড় ভুলটা হয়েছে। বিপিএলে পাঁচ ছয়টা ম্যাচ বিশ্রামে থাকলে ভালো ছন্দে আসার সুযোগ পেত। শান্ত শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে একটা ফিফটি করেছিল। যদিও জিম্বাবুয়ে সিরিজে এতটা ভালো করতে পারেনি। ওর আত্মবিশ্বাস কম মনে হচ্ছে।’
 

আশরাফুল আরও বলেন, ‘শান্তর স্ট্রাইকরেট সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। আমাদের দেশে একটা সমস্যা হলো এক সংস্করণে ভালো করলে সব সংস্করণের জন্য বিবেচনা করে ফেলি। শান্ত টি-টোয়েন্টিতে অফফর্মে আছে। সে ২০২২ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে দুটি ফিফটি করেছি। তবে তার স্ট্রাইকরেট ১১০ এর মতোই ছিল।’


 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-৪০৩১


সূত্র : ঢাকামেইল