সিলেট মহানগরে গরুবাজার নিয়ে এক মেম্বারকে মারধর ও গুলি করার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। 

 


গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে বাইশটিলা বাজারের এ ঘটনা ঘটে। 

 

মারধরে আহত জিল্লু মিয়া খাদিমনগরের ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের নির্বাচিত মেম্বার। তিনি সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তিনি চলতি বছরে বাইশটিলা বাজারে কুরবানি হাট ভাড়া নেন। 

 

আহত জিল্লু মিয়ার ভাই সবুজ আহমদ বলেন, গতকাল রাতে আলী হাসান সানির নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী এসে হাটের ব্যবসায়ীদের থেকে জোর করে গরু কিনে নেন। একই সঙ্গে বাজার কমিটিকে কোনো ফি না দিয়ে সানি ব্যবসায়ীদেরকে বলেন হাটের বাইরে গিয়ে তাদেরকে গরুর মূল্য পরিশোধ করবেন। তারা (সানিরা) হাটের ফি না দিয়েই গাড়িতে করে চলে যাচ্ছিলেন। এসময় জিল্লু মেম্বার গিয়ে গাড়ি আটক করেন। তখন সানি ও তার ভাড়া করা সন্ত্রাসবাহিনী জিল্লু মেম্বরকে জোর করে গাড়িতে তুলেন নিয়ে বাজার থেকে ৮ কিলোমিটার দূরে নিয়ে যায়। সেখানে মেম্বারকে টর্সলাইট দিয়ে পিটিয়ে আহত করা হয়। গুলি করার চেষ্টা করলে মেম্বার গাড়ি থেকে লাফ দিয়ে নেমে দৌড় দেন। তখন আমরা গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করি।’ 

 

সবুজ আহমেদ বলেন, মেম্বারকে মারধর করেন আলী হাসান সানি, মাইনুদ্দিন, শিপন, ইশতিয়াক আহমেদ রাজু ও খোকন। তারা সবাই খাসদবির এলাকার। তারা সাবেক মেম্বার শাকির মিয়ার পরিকল্পনায় জিল্লুর মেম্বাকে মারধর করেছে বলে অভিযোগ করেন সবুজ আহমেদ। এর মধ্যে ইশতিয়াক আহমেদ রাজু গতকাল চিনি ছিনতাইয়ের অভিযোগে পুলিশের হাতে আটক হয়েছেন। 

 

এ ঘটনায় বিমানবন্দর থানায় ১৫ জনকে অভিযুক্ত করে রাতেই অভিযোগ দিয়েছেন বলে জানান সবুজ আহমদ। 

 

অভিযোগের বিষয়ে জানতে আলী হাসান সানির মুঠোফোনে কল দিলে নম্বরটি বন্ধ পাওয়া যায়। পরে একাধিকবার চেষ্টা করা হলেও কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। 

 

অভিযোগের বিষয়ে সাবেক মেম্বার ও বাইশটিলা বাজার কমিটির সভাপতি শাকির মিয়া মুঠোফোনে বলেন, ‘অভিযোগ মিথ্যা।’

 

ঘটনার বিষয়ে বিমানবন্দর থানার ওসি নুনু মিয়া বলেন, জিল্লুর মেম্বার বাইশটিলায় গরু বাজার ভাড়া নেন। এতে ব্যবসায়ীরা সড়কে গরু বিক্রি করছিলেন। তখন কয়েকজন প্রতিবাদ করছিল যাতে রাস্তায় গরু বিক্রি না করা হয়। এসময় জিল্লু মেম্বারকে মারধর করে আহত করা হয়েছে বলে খবর পেয়েছি। এখনও কোনো অভিযোগ পাননি বলে তিনি জানান। তবে মামলা হবে বলে জানিয়েছেন পুলিশের এই কর্মকর্তা।

 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ এনএফ