সিলেটে অন্যান্য বারের তুলনায় কুরবানির পশুর হাটে কেনা-বেচা কম। প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও অর্থনৈতিক মন্দা- সব মিলিয়ে এবারে যেন সিলেটে পশু কুরবানিদাতার সংখ্যা কমেছে। আর গত কয়েকদিন দিন বৃষ্টিও বাগড়া দিয়েছে পশুর হাটে। তবে শেষ মুহুর্তে রবিবার (১৬ জুন) সন্ধ্যার পর থেকে সিলেটের পশুর হাটগুলোতে বেশ বিক্রি হচ্ছে গরু-ছাগল।  

 


 

এছাড়া হাটে না গিয়ে পথে পথে অনেকেই গরু-ছাগল কিনে বাড়ি ফিরছেন।

 

 


বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা গেছে- অস্থায়ী হাট সিলেট নগরের পাঠানটুলায় প্রচুর গরু নিয়ে উঠেছে। গরু বেশি থাকায় সন্ধ্যার পর থেকে কমতে শুরু করে দাম। 

 

 


একই অবস্থা স্থায়ী পশুর হাট কাজিরবাজার, অস্থায়ী হাট মদিনা মার্কেট, আখালিয়া ও  কুমারগাও এলাকায়ও।  

 

 


বিক্রেতারা বলছেন- যে গরু দেড় লক্ষ টাকা দাম হয়েছে কাল বা আজ সকালে, সে গরু এখন এক লক্ষ বিশ্বে বিক্রি করতে হচ্ছে। আর এক লক্ষ টাকার গরু এখন ৭০/৭৫ হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে। 

 

 


দেশি জাতে গরু বিক্রয় করতে আসা কুরবানটিলার ফজর আলী বলেন- গতকাল আমার গরুটি ৮৫ হাজা টাকা দাম হয়েছিলো। আমি বিক্রয় করিনি।  আজ সে গরু মাত্র দাম হচ্ছে ৫০-৫৫ হাজার টাকা। আরেকটু দেখে ওই দামেই হয়তো বিক্রি করে দেবো।

 

 


সিলেটভিউ২৪ডটকম / শাহীন / ডি.আর