সিলেটে ঈদের দিন (সোমবার) ভোররাত থেকে ঝরছে অবিরাম বৃষ্টি। অনেক বাসা-বাড়িতে পানি ঢুকে পড়ায় ও টানা বৃষ্টিতে বিপাকে পড়েছেন সিলেটের কুরবানিদাতারা। অন্যান্য বছর ঈদ জামাতের পরপরই কুরবারিন কার্যক্রম শুরু করতে পারলেও এবারে বৃষ্টি এবং জলাবদ্ধতার কারণে তা সম্ভব হয়নি। অপেক্ষা বৃষ্টি থামার। 

 



সিলেট মহানগরের তালতলা এলাকার বাসিন্দা সানাওর রহমান চৌধুরী এ প্রতিবেদককে বলেন- আমাদের বাসার নিচে পানি। আর অবিরাম বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টি না থামলে ও পানি না কমলে গরু কুরবানি দিতে পারবো না। অপেক্ষা করতে হচ্ছে। 

 


এর আগে ভারী বৃষ্টি মাথায় নিয়ে সিলেট শাহী ঈদগাহে ঈদুল আযহার প্রধান জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার (১৭ জুন) সকাল ৮টায় জামাতটি অনুষ্ঠিত হয়।  

 


তবে মুসল্লির সংখ্যা ছিলো অনেক কম। প্রতি ঈদে লক্ষাধিক মুসল্লি এখানে ঈদের নামাজ আদায় করলেও প্রতিকুল আবহাওয়ার কারণে আজকের জামাতে ছিলো মাত্র কয়েক হাজারের উপস্থিতি।

 

 

জামায়াতে ইমামতি ও পরে দোয়া পরিচালনা করেন বন্দরবাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের পেশ ইমাম মাওলানা মুফতি আবু হোরায়রা নোমান। 

 

 

জানা গেছে, অনেক ঈদগাহে জামাত অনুষ্ঠিত হয়নি বৃষ্টির কারণে। নিজ নিজ এলাকার মসজিদে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

 

 


এদিকে, সোমবার সকালের মধ্যেই তলিয়ে গেছে মহানগরের অনেক এলাকা। রাস্তাঘাট ডুবে পানি ঢুকেছে অনেকেরই বাসাবাড়ি ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে।

 

 

অনেক সড়কে হাটুর উপরে পানি। এ অবস্থায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন জলাবদ্ধ এলাকাগুলোর মানুষজন। অনেকেই ঈদের জামাতে যেতে পারেননি।

 

 


আবহাওয়ার পূর্বাভাসে আগেই বলা হয়েছিলো- ঈদের দিন সিলেট অঞ্চলে বৃষ্টি হতে পারে।

 


সিলেট আবহাওয়া অফিস সূত্র জানিয়েছে, গত ২৪ ঘন্টায় (রবিবার সকাল ৬টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত) সিলেটে ১৭৩.৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। আর আজ সকাল ৬টা থেকে সকাল ৯টা পর্যন্ত ৮৬ মি.মি বৃষ্টি হয়েছে।  

 

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম / ডি.আর