সরকারের ভয়ে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার চিকিৎসায় সহযোগিতা না দিয়ে ইউনাইটেড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অমানবিক আচরণ করেছে বলে দাবি করেছেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, এ দেশের সাধারণ মানুষ যদি এখন এই হাসপাতালের ইট খুলে নিয়ে যায় তাহলে তাদের করার কিছু থাকবে না।
 

সোমবার (২৪ জুন) দুপুরে নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে স্বেচ্ছাসেবক দলের দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। এ সময় ইউনাইটেড হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের এমন আচরণের নিন্দা জানান রিজভী।
 


রিজভী বলেন, খালেদা জিয়া পায়ে হেঁটে কারাগারে গিয়েছিল, আর সেই নেত্রী বের হলেন হুইল চেয়ারে। আজকে তিনি একের পর এক অসুস্থতায় ভুগছেন। এটার অন্য কোনও কারণ নেই। এটার নতুন করে অন্য কোনও ব্যাখ্যার প্রয়োজন পড়ে না। খালেদা জিয়াকে তিলে তিলে শেষ করার জন্য কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। তাকে খাবারের বিষক্রিয়া করে নানা অসুস্থতায় ভোগানো হচ্ছে।
 

আইনমন্ত্রী মানসিকভাবে অসুস্থ দাবি করে রিজভী বলেন, যখন খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিয়ে চিকিৎসার কথা বলা হয়, আইনমন্ত্রী সঙ্গে-সঙ্গে বলে দেন এটা হবে না। অনেকেই বলে আইনমন্ত্রী মানসিকভাবে অসুস্থ। তার মধ্যে কোনও করুণা, সহানুভূতি, মানবিকতা নেই।


 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-৫৫০৫


সূত্র : ঢাকাপোষ্ট