সিলেটের বিভিন্ন উপজেলায় যখন পানি কমছে ঠিক তখনই পানি বাড়ছে গোলাপগঞ্জ উপজেলায়। উপজেলার কুশিয়ারা ডাইকের ওপর দিয়ে হুহু করে পানি ডুকছে। সিলেটজুড়ে যখন মানুষের ঘরবাড়ি থেকে পানি নামছে তখন এই উপজেলায় মানুষের ঘরবাড়িতে পানি।

 


ভাদেশ্বরের মীরগঞ্জ বাজার পয়েন্ট দিয়ে এ পানি ঢুকে পড়ার কারণে বাজারের প্রায় দুই শতাধিক দোকানপাট বন্ধ রয়েছে।

 

কুশিয়ারা নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার ফলে আশপাশ গ্রামগুলো তলিয়ে গেছে। এতে পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছেন শত শত পরিবার। এসব এলাকায় সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে এখনও ত্রান সামগ্রী পৌছায়নি।

 

মীরগঞ্জ বাজার কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার রানিক জানান, কুশিয়ারা নদীর পানি বিপদসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হওয়ার ফলে মীরগঞ্জ বাজার তলিয়ে গেছে। আমার ২ হাজার ফুট বালু নদীর পানিতে তলিয়ে যাওয়ায় প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে।

 

শরীফগঞ্জ, বাদেপাশা, বুধবারীবাজার, ভাদেশ্বর, বাঘা, সদর ইউনিয়ন ও পৌরসভায় কয়েকটিসহ প্রায় শতাধিক গ্রাম পানির নীচে রয়েছে। এসব এলাকার লোকজন বর্তমানে চরম মানবেতর জীবনযাপন করছেন।

 

এদিকে সোমবার সকাল ৬টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ৫১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এরআগে রোববার সকাল ৬টা থেকে সোমবার সকাল ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ৪ দশমিক ১ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে।

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম / হারিছ / মাহি