প্রকাশিত: ৩১ মার্চ, ২০২৩ ১৮:৩৮ (মঙ্গলবার)
দশ বছর পর ৮ দলের সাফ

আসন্ন সাফ চ্যাম্পিয়নশীপ ৮ দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে। আজ দুপুরে অনুষ্ঠিত সাফের নির্বাহী কমিটির ভার্চুয়াল সভায় এই সিদ্ধান্ত হয়েছে।
 

সাফে এখন ৭ টি দেশ। এর মধ্যে শ্রীলঙ্কা ফিফার নিষেধাজ্ঞায় রয়েছে। শ্রীলঙ্কার জন্য ২০ এপ্রিল পর্যন্ত অপেক্ষা করবে সাফ। এর মধ্যে নিষেধাজ্ঞা উঠলে আগামী জুনের তৃতীয় সপ্তাহে ভারতের ব্যাঙ্গালুরুতে অনুষ্ঠিতব্য সাফে দ্বীপদেশটি অংশগ্রহণ করতে পারবে৷
 

নির্ধারিত সময়সীমার মধ্যে শ্রীলঙ্কার নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না হলে দক্ষিণ এশিয়ার বাইরে থেকে দুটি দল সাফে খেলার সুযোগ পাবে। সাফের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল দক্ষিণ এশিয়ার বাইরের দলকে আমন্ত্রণ জানানো প্রসঙ্গে বলেন, ‘আমাদের সভায় ৮ দল নিয়ে টুর্নামেন্ট করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। শ্রীলঙ্কা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার হলে সাফের বাইরে একটি আর না হলে দুটো দলকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। ভারত দক্ষিণ এশিয়ার সর্বোচ্চ র্যাংকিং দল। ভারতের চেয়ে উচু র্যাংকিংধারী এশিয়ান দলকে আমন্ত্রণ জানানো হবে যাতে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপুর্ণ হয়।'
 

সাফের বাইরের দল নিশ্চিত হলে টুর্নামেন্টের ড্র অনুষ্ঠিত হবে। টুর্নামেন্টের স্বাগতিক ভারত ব্যাঙ্গালুরুতে এই ড্র অনুষ্ঠান করতে চায় ১০-১২ মে। এর আগে ঢাকায় সাফ কংগ্রেস রয়েছে। সেই কংগ্রেস শেষেও ড্র অনুষ্ঠান করার বিকল্প পরিকল্পনা রয়েছে সাফের। আট দল দুই গ্রুপে খেলবে দুই গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ সেমিফাইনালে উঠবে । বাংলাদেশ সর্বশেষ ২০০৯ সালে সাফের গ্রুপ পর্বের গন্ডি পার হয়েছিল।
 

৮ দল নিয়ে সাফ সর্বশেষ হয়েছিল ২০১৩ সালে। আফগানিস্তান ফুটবল প্রতিযোগিতায় সাফ অঞ্চল থেকে বেরিয়ে যাওয়ায় সাফ আর ৮ দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হয়নি।

 


সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এসডি-১৫