প্রকাশিত: ০৪ এপ্রিল, ২০২৩ ১৬:৪৭ (বুধবার)
দ্রুতই সাবিনারা তাদের পাওনা বুঝে পাবেন

দেশের ফুটবলে বর্তমান আলোচ্য বিষয় সাফজয়ী মেয়েদের অলিম্পিক বাছাই খেলতে না যাওয়া। টাকার অভাবে মিয়ানমারে অলিম্পিক বাছাই খেলতে যেতে পারেননি তারা। সাফজয়ী দলকে অনেকেই অনেক আর্থিক পুরস্কার ঘোষণা করেন। তবে প্রতিশ্রুত সকলের অর্থ এখনও পাননি সাবিনারা। আজ ফেসবুক স্ট্যাটাসে দ্রুতই প্রতিশ্রুত অর্থ পাওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন জাতীয় দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন।
 

বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাম মুর্শেদী এবং সহ-সভাপতি আতাউর রহমান ভূঁইয়া মানিক দুজনই সাফজয়ী মেয়েদের ৫০ লাখ করে টাকা দেয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন। প্রায় ৭ মাস পেরিয়ে গেলেও মেয়েদের প্রতিশ্রুত অর্থ দেননি বাফুফে সিনিয়র সহ-সভাপতি সালাম মুর্শেদী। গতকাল মেয়েদের টাকা দিয়েছেন মানিক। সেই টাকা বুঝে পেয়েছেন বলে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন সাবিনা।  

সালাম মুর্শেদীর মতো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও (বিসিবি) মেয়েদের ৫০ লাখ টাকা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। সেই টাকা বিসিবি বুঝিয়ে দিতে চাইলেও সময় মিলছে না দুই পক্ষের। তবে দ্রুতই এই সমস্যার সমাধান হবে বলে প্রত্যাশা সাবিনার। তার ফেসবুক স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো।

‘প্রসঙ্গ সাফ ২০২২-নেপাল

ফাইনাল ম্যাচের আগের দিন রাতে বাংলাদেশ সেনা প্রধানের কাছ থেকে ফোন আসে যেন মেয়েরা খুব ভালোভাবে খেলে এবং চ্যাম্পিয়ন হয়ে দেশে আসে। দেশে আসলে তাদের অনেক বড় সংবর্ধনা দেওয়া হবে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে এবং একইসঙ্গে ফাইনাল ম্যাচের আগের দিন রাতে আমাদের প্রধান কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন স্যার ও আমার কাছে বসুন্ধরা কিংস থেকে কল আসে যেন আমরা মেয়েদেরকে বলি ফাইনাল ম্যাচ ভালো করে দেশে ফিরতে। দেশে ফিরলে তারা অনেক বড় সংবর্ধনার আয়োজন করবেন। একই সাথে দেশের মানুষের আমাদের প্রতি এমন আশা-ভরসা দেখে মেয়রা অনুপ্রাণিত হয়েছিল।
তার সাথে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ভালোবাসা তো ছিলই! 

অবশেষে আমরা পেরেছিলাম সবার মুখে হাসি ফোটাতে এবং চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর অনেকে অনেক ঘোষণা দেন আলহামদুলিল্লাহ অনেকে তাদের দেওয়া ঘোষণার অর্থ বুঝিয়ে দিয়েছিলেন। আবার অনেকের সময় স্বল্পতার কারণে হয়তো দিতে পারেননি। সময় হয়ে উঠলে হয়তো তারাও যে ঘোষণা দিয়েছিলেন সেটা মেয়েদের দেবেন। গতকাল আমরা আতাউর রহমান মানিক স্যারের দেওয়া ঘোষণার টাকাও পেয়েছি আলহামদুলিল্লাহ!

পরিশেষে বাংলাদেশের সকল মানুষের প্রতি আমাদের অনেক শ্রদ্ধা ও সম্মান আপনারা আমাদের পাশে থাকুন এটাই আমাদের প্রত্যাশা। ’

দ্রুতই সাবিনারা তাদের পাওনা বুঝে পাবেন এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/পল্লব-৪