প্রকাশিত: ১১ এপ্রিল, ২০২৩ ১৯:২৯ (বুধবার)
পাকিস্তান-শাসিত কাশ্মিরের প্রধানমন্ত্রী ক্ষমতাচ্যুত 

পাকিস্তান-শাসিত কাশ্মিরের প্রধানমন্ত্রী সরদার তানভীর ইলিয়াসকে আদালত অবমাননার মামলায় তার কার্যালয় থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার দেশটির একটি আদালত তাকে ক্ষমতাচ্যুত করে আদেশ জারি করেছে।

 

দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের রাজনৈতিক দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) নেতা সরদার তানভীর ইলিয়াস।

 


কাশ্মিরের এই নেতা গত সপ্তাহে তার সরকারের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে আদালতের হস্তক্ষেপের সমালোচনা করে বক্তৃতা দিয়েছিলেন। পরে তার বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ আনা হয় বলে আদালতের একজন কর্মকর্তা রয়টার্সকে জানিয়েছেন।

 

মুজাফফরাবাদ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি সাদাকাত হুসেন রাজার নেতৃত্বে চার বিচারকের একটি প্যানেল কাশ্মিরের প্রধানমন্ত্রী ইলিয়াসকে দোষী সাব্যস্ত করেছে।

মঙ্গলবার আদালত কক্ষের প্রধান বিচারপতি বলেন, তিনি (সরদার তানভীর ইলিয়াস) সংসদের সদস্য হওয়ার অযোগ্য এবং কোনও সরকারি পদে থাকার যোগ্যতা হারিয়েছেন তিনি। 

 


পাকিস্তানের আইন অনুযায়ী, দণ্ডিত কোনও নেতা পাঁচ বছরের জন্য যেকোনও নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার অযোগ্য বলে বিবেচিত হবেন। তবে এই সাজার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করতে পারবেন তিনি।

 

আদালত ইলিয়াসের বক্তৃতার একটি ভিডিও প্রদর্শন করেছে। আদালত কক্ষে উপস্থিত থাকা রয়টার্সের একজন প্রতিবেদক বলেছেন, তিনি (সরদার তানভীর ইলিয়াস) আদালতের বিরুদ্ধে বক্তৃতা দিয়েছেন কি না এবং বক্তৃতার বিষয়বস্তু যাচাই করতে চান কি না তা জানতে চায় আদালত।

 

তবে ইলিয়াস আদালতের এই অভিযোগের বিষয়ে কোনও চ্যালেঞ্জ জানাননি। এর পরিবর্তে ক্ষমা চান তিনি। কিন্তু আদালত তা প্রত্যাখ্যান করে।

 

কাশ্মিরের বিতর্কিত হিমালয় অঞ্চল ভারত ও পাকিস্তানের মাঝে বিভক্ত। পাকিস্তান-শাসিত কাশ্মির একটি আধা-স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল; যার নিজস্ব আঞ্চলিক সরকার রয়েছে।

 

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/এনটি