প্রকাশিত: ৩০ এপ্রিল, ২০২৩ ১৯:৩৪ (রবিবার)
এসএসসি পরীক্ষা : শাল্লায় প্রথম দিনে অনুপস্থিতির ১৩ জন

বাংলাদেশ সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রশ্নফাঁস ও গুজব রটনা কারীদের প্রতিরোধের নানান পদক্ষেপ নিয়ে সারাদেশের ন্যায় সুনামগঞ্জের শাল্লায় চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

র‌বিবার (৩০ এপ্রিল) সকাল ১০টা থেকে শুরু করে দুপুর ১টা পর্যন্ত বাংলা বিষয়ে এসএসসি ও সমমান পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

শাল্লা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের তথ্যানুসারে, শাল্লার ১৭ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ১০৫৬ জন পরীক্ষার্থী চার উপজেলার শাল্লা, দিরাই, বানিয়াচং ও আজমিরীগঞ্জের ৬ টি কেন্দ্রে একইসাথে চলমান এসএসসি ও সমমান পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। উক্ত পরীক্ষায় অনুপস্থিতির সংখ্যা মোট ১৩ জন। তবে বিগত বছরের অকৃতকার্য ১৮৯ জন পরীক্ষার্থীও চলমান পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ফরম ফিলাপ করে।

এরমধ্যে শাল্লায় শাহীদ আলী মডেল পাবলিক পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় সেন্টারের ভেন্যু গোবিন্দ চন্দ্র সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে মোট ৪৭২ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে উপস্থিত ৪৬৮ জন ও অনুপস্থিত ০৪ জন ছিল।

প্রতাপপুর ও সরলাল বৈষ্ণব স্কুলের এসএসসি পরীক্ষা আজমিরীগঞ্জ উপজেলাধীন পাহাড়পুর সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থী ১১০ জনের শতভাগই উপস্থিত ছিল।

চাকুয়া ও হাফিজ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষা দিরাই উপজেলাধীন ব্রজেন্দ্রগঞ্জ (শ্যামারচর) সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে মোট পরীক্ষার্থী ১৩৪ জনের মধ্যে ১৩২ জন উপস্থিত ও ২ জন অনুপস্থিত ছিল।

আসলাম উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষা আজমিরীগঞ্জ সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ৮২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৮১ জন উপস্থিত ও ১ জন অনুপস্থিত ছিল।

মহিম চন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় ও সাউধেরশ্রী স্কুল  এন্ড কলেজের এসএসসি পরীক্ষা বানিয়াচং উপজেলাধীন কাদিরগঞ্জ সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ২০৯ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ২০৪ জন উপস্থিত ও ০৫ জন অনুপস্থিত ছিল।

 

অন্যদিকে শাল্লা হাসিমিয়া ইসলামিয়া ও দামপুর মাদ্রাসার দাখিল পরীক্ষা দিরাই উপজেলাধীন দিরাই সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে ৪৯ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৪৮ জন উপস্থিত ও ১ জন অনুপস্থিত ছিল।

এবিষয়ে শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের কেন্দ্র সচিব আরিফুল ইসলাম দুলাল বলেন, কোন ধরনের সমস্যা ছাড়াই খুব সুন্দরভাবে পরীক্ষা সুসম্পন্ন হয়েছে। শাল্লায় এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার সেন্টার শাহীদ আলী মডেল উচ্চ বিদ্যালয় কিন্তু ভেন্যু হচ্ছে গোবিন্দ চন্দ্র সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়।

এবিষয়ে শাল্লা উপজেলা মাধ্যমিক কর্মকর্তা(অ.দা:) জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমাদের অফিসের কালীপদ বাবুর সাথে যোগাযোগ করলে বিস্তারিত সব তথ্য জানতে পারবেন। তারপরেও আমি খোঁজ নিয়েছি পরীক্ষার্থীরা মনোযোগ সহকারে পরীক্ষা দিয়েছে। কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে নি। এখানের উপস্থিতি প্রায় শতভাগই বলা চলে।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু তালেব বলেন, আমি শাহীদ আলী পরীক্ষার সেন্টার ঘুরে আসলাম। এবারের এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার্থীরা খুব উৎসবমুখর, সুষ্ঠু, সুন্দর ও সুশৃঙ্খল পরিবেশে পরীক্ষা দিয়েছে। এই সেন্টারে ৪৭২ জন পরীক্ষার্থীদের মধ্যে ৪৬৮ জন অংশগ্রহণ করে এবং ৪ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল।

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম /সন্দীপন/ নাজাত