প্রকাশিত: ০৯ মে, ২০২৩ ১২:১৯ (মঙ্গলবার)
ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি প্রস্তুত, যে কোন সময় প্রকাশ

আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ত্রিদেশীও রাষ্ট্রীয় সফর শেষে করে দেশে ফিরলেই কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির ঘোষণা করা হবে।

 

এর মধ্যে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি প্রস্তুত করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন পেলেই কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা। এছাড়া কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করার পরেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে।

 

আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্রস্তাবিত পূর্ণাঙ্গ কমিটি প্রস্তুত করার পরে আওয়ামী লীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতাদেরকে সেই কমিটি দেখানো হয়েছে। আওয়ামী লীগ নেতারা তা দেখে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার নিদের্শক্রমে দ্রুত কমিটি ঘোষণা করার তাগিদও দিয়েছেন।

 

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্রস্তাবিত পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার পাশাপাশি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের প্রস্তাবিত কমিটির তালিকা করা হয়েছে। কিন্তু কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা না করার কারণে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ কমিটি আটকে আছে। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কমিটি হওয়ার পরে যেকোনো সময় এই কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা।

 

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের আকার অপরিবর্তিত রেখেই নতুন করে আটটি পদ বাড়ানো হয়েছে। সেক্ষেত্রে কমে যেতে পারে সদস্য ও সহ-সম্পাদক থেকে আটটি পদ।

ছাত্রলীগের নতুন পদগুলো হলো: অটিজম বিষয়ক সম্পাদক, মানবাধিকার বিষয়ক সম্পাদক, মাদ্রাসা শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক, কারিগরি শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক, ছাত্রী ও নারী উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্য (এসডিজি) বিষয়ক সম্পাদক, উদ্যোক্তা ও উদ্ভাবন বিষয়ক সম্পাদক, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বিষয়ক সম্পাদক।

 

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক শেখ ওয়ালী আসিফ ইনান বলেন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কমিটি করার জন্য তালিকা প্রস্তুত করা হয়েছে। যেহেতু আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের বাইরে, তাই তিনি দেশে ফিরলে তার অনুমতি নিয়ে কমিটি ঘোষণা করা হবে।

 

শেখ ওয়ালী আসিফ বলেন, বর্তমান ছাত্রলীগের কমিটিতে তেমন কিছু পরিবর্তন করা হয়নি। তবে নতুর করে আটটি পদ সৃষ্টি করা হয়েছে। যাচাই-বাচাই করে নতুন ও পুরাতনের সমন্বয়ে কমিটি করা হবে। এই সংগঠনের মধ্যে কোনো বিতর্কিত লোকের জায়গা হবে না।

 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক তানভীর হাসান সৈকত বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি করার জন্য কমিটির প্রস্তুত করা আছে। তবে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ষোঘণা না করা পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা যাবে না। ঢাবি শাখার ২৫১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি করা হতে পারে।

 

তানভীর হাসান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের কমিটির পদ বাড়ানো হয়নি। তবে পদ বাড়ানো না হলেও কাজের পরিধি বাড়ানো হবে। একপদে থেকেই একাধিক পদের কাজ করতে হবে। সংগঠনের মধ্যে যাদের পারফরমেন্স ভালো যাচাই-বাচাই করে নতুন ও পুরাতনের সমন্বয় কমিটির করা হবে।

 

গত বছরের ৬ ডিসেম্বর রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে ছাত্রলীগের ৩০তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে ২০ ডিসেম্বর সাদ্দাম হোসেনকে সভাপতি ও শেখ ওয়ালী আসিফ ইনানকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটির ঘোষণা করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে কমিটি ঘোষণা করেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/ মাহি