প্রকাশিত: ১২ মে, ২০২৩ ১৮:২৬ (রবিবার)
দুই দশক পর এমসি কলেজ ছাত্রলীগে কমিটির সুর

দুই দশক পর সিলেটের ঐতিহ্যবাহী মুরারিচাঁদ (এমসি) কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি গঠনের তোড়জোর শুরু হয়েছে। এতে পদপ্রত্যাশী নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রাণ চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। ঝিমিয়ে পড়া দলটির সাংগঠনিক কার্যক্রম গতিশীল করতে নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে আগামী ১৫ মে কলেজটিতে কর্মীসভার আয়োজন করছে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগ।

 

সর্বশেষ ২০০৩ সালে তাজিম উদ্দিনকে সভাপতি, সাইফুল ইসলাম টিপুকে সাধারণ সম্পাদক করে কমিটি ঘোষণা করে সিলেট জেলা ছাত্রলীগ। ২০১০ সালের ১৩ জুলাই ছাত্রলীগ নেতা উদয়ন সিংহ পলাশ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় বাতিল করা হয় এই কমিটি। এরপর দীর্ঘ ২০ বছরেও কমিটি গঠিত হয়নি।

 

সিলেটে মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি কিশওয়ার জাহান সৌরভ সিলেটভিউকে জানান, আগামী ১৫ মে এমসি কলেজ (মুরারিচাঁদ কলেজ) ছাত্রলীগ ও সিলেট সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি গঠনের লক্ষ্যে কর্মীসভা করে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশীদের জীবন বৃত্তান্ত (সিভি) সংগ্রহ করা হবে। আশাকরছি দ্রুত সময়ের মধ্যই এই দুই ইউনিটে সুন্দর কমিটি উপহার দিতে পরবো।

 

এদিকে দীর্ঘ দিন পর কমিটি গঠনের খবরে পদপ্রত্যাশী নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রাণ চাঞ্চল্য হয়েছে জানিয়ে এমসি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা দিলোয়ার হোসেন রাহী সিলেটভিউকে বলেন, ‘প্রায় দীর্ঘ দুই যুগ পর এমসি কলেজ ছাত্রলীগের নতুন কমিটি গঠনের লক্ষ্যে সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের এমন সময়োপযোগী সিন্ধান্ত নিশ্চই সংগঠনের গতিশীলতা আরও বহুগুণ বৃদ্ধি করবে। সংগঠনের প্রাণ নেতা-কর্মীদের নতুন উদ্যমে কাজ করার শক্তি যোগাবে।’

 

নাম প্রকাশ না করে পদপ্রত্যাশী অনেক নেতা জানান, ‌‘দীর্ঘ দিন পরে কমিটি গঠনের দৃশ্যমান প্রক্রিয়া শুরু হওয়ায় তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মধ্যে উৎসবের আমেজ সৃষ্টি হয়েছে। যেহেতু এটি একটি সনামধন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সারাদেশেই এর একটি বিশেষ পরিচিতি রয়েছে তাই এই কমিটির নেতৃত্বে যাতে অছাত্র, বির্তকিত কেউ না আসে এজন্য সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের দায়িত্বশীলদের প্রতি অনুরোধ থাকবে।’

 

প্রসঙ্গত- কমিটি না থাকায় কলেজে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘাত; প্রায় সময়ই এমন সংবাদের শিরোনাম এসেছে এমসি ছাত্রলীগ। আর ছাত্রলীগের টিলাগড়কেন্দ্রীক বলয়ে বিভক্তি ও দীর্ঘদিন ধরে কমিটিহীনতার কারণে এমসি কলেজে বারবার সংঘাতের ঘটনা ঘটছে বলে দাবি সাবেক ছাত্রলীগ নেতাদের।

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ কেআইএম