প্রকাশিত: ১৬ মে, ২০২৩ ১৯:২৭ (শুক্রবার)
হালকা বাতাসেই ভেঙে পড়লো সিলেট বাস টার্মিনালের গ্লাস, আতঙ্ক

ছবি : রুবেল মিয়া

এখনও হয়নি আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন। কাজ চলমান অবস্থায় ও পরীক্ষামূলক উদ্বোধনের সময় বলা হয়েছিলো- সিলেটের কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালটি অত্যন্ত আধুনিক করে নির্মাণ করা হয়েছে বা হচ্ছে। এটি এশিয়ার মধ্যে অন্যতম একটি দৃষ্টিনন্দন বাস টার্মিনাল। 

কিন্তু পরীক্ষামূলক উদ্বোধনের কিছুদিনের মধ্যেই ধরা পড়লো- বাস টার্মিনালটির ছাদে ফাটল। এ বিষয়ে গঠন করা হলো তদন্ত কমিটি। আর এ কমিটি নির্মাণ নকশা এবং কাজেও খুঁজে পেয়েছে ত্রুটি। এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করে সিসিকের পক্ষ থেকে জানানো হবে বিস্তারিত।

এ ঘটনা পর এবার হালকা বাতাসেই ঝন ঝন করে ভেঙে পড়লো এ বাস টার্মিনাল ভবনে লাগানো একটি থাই গ্লাস। 

মঙ্গলবার (১৬ মে) বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। এসময় টার্মিনালে আগত বিভিন্ন স্থানের যাত্রীসহ এখানে অবস্থানরত সকলের মাঝে চরম আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। 

যেখানে থাই গ্লাস ভেঙে পড়ে, সেখানে তিনজন লোক বসা ছিলেন। অল্পের জন্য হতাহতের হাত থেকে রক্ষা পান তারা। 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান- মঙ্গলবার বিকাল ৩টা থেকে সিলেটে ঝড়-বৃষ্টি হয়। এর সঙ্গে শুরু হয় দমকা হাওয়া। বিকাল ৪টার দিকে বাতাসের ধাক্কায় সিলেট কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের নবনির্মিত ভবনের যাত্রীদের বসার স্থানের কক্ষের একটি দেওয়ালে লাগানো থাই গ্লাস ঝন ঝন করে ভেঙে পড়ে। গ্লাস ভেঙে পড়ছে দেখে এর নিচে থাকা তিনজন দৌঁড়ে প্রাণে রক্ষা পান। এ ঘটনায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। 

টার্মিনালে অবস্থান করা পরিবহন নেতাদের অনেকেই সিলেটভিউ-কে জানিয়েছেন- প্রথম থেকেই বাতাস শুরু হলে টার্মিনাল ভবনে লাগানো সকল থাই গ্লাস কাঁপতে থাকে, যেন মনে হয় এইমাত্র সকল গ্লাস একসঙ্গে ভেঙে পড়বে। 

তারা অভিযোগ করে বলেন- এসব গ্লাসে সম্ভবত নাট-বল্টু পর্যাপ্ত লাগানো হয়নি। আর গ্লাসগুলো কেমন আলগা করে লাগানো হয়েছে। ঝড়-তোফানের দিনে এসব গ্লাস ভেঙে পড়ে যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। 

এ বিষয়ে সিলেট কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালের রক্ষণাবেক্ষণকারী প্রতিষ্ঠান সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. বদরুল হক সিলেটভিউ-কে বলেন- বিষয়টি এই মুহর্তে জানলাম। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাকে জানাচ্ছি। বিষয়টি সত্যিই এমন হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


সিলেটভিউ২৪ডটকম / এন.এ.পি / ডালিম