প্রকাশিত: ২১ মে, ২০২৩ ০০:৫৩ (শুক্রবার)
যে কারণে নির্বাচন থেকে সরে গেলেন আরিফ

আসন্ন সিলেট সিটি করপোরেশনে নির্বাচনে অংশ নিবেন না সিসিক মেয়র ও বিএনপির কেন্দ্রীয় সদস্য আরিফুল হক চৌধুরী। শনিবার (২০ মে) বিকালে মাহানগরীর ঐতিহাসিক রেজিস্ট্রারি মাঠে জনসভায় এই সিদ্ধান্তের কথা জানান বিএনপির এই নেতা।

জনসভায় লিখিত বক্তব্যে মেয়র বলেন, আমি শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের আর্দশে বিএনপির রাজনীতি শুরু করেছি। আমার জীবন থাকতে এই দলের ক্ষতি হয় এমন কোন সিদ্ধান্ত নিবো না। এই সরকারের অধীনে কোন নির্বাচন করার পরিবেশ নেই। বিশ্বের উন্নত দেশগুলো যখন ইভিএম-কে না বলে দিয়েছে, বাংলাদেশের আপামর জনগন যেখানে ইভিএমকে না করছে, সেই জায়গায় সিলেটে তারা নিয়ে এসেছে ইভিএম। নির্বাচনের আর মাত্র মাসখানে বাকি আছে, কিন্তু সিলেটের মানুষ এখনো ইভিএম দিয়ে কিভাবে ভোট দিতে হয় সেটি জানেনা। নির্বাচন কমিশন চাইলে ছয়মাস আগে থেকেই ইভিএম এ ভোট দেয়ার প্রশিক্ষন দিতে পরতো। ইভিএম ভোট কারচুপির মহা আয়োজন। বর্তমান সরকার সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন আয়োজন করতে চায় না।

আরিফ বলেন, ভোট নিয়ে মানুষের আস্থা এমন তলানিতে পৌছে গেছে যে, কোন নির্বাচন হলেই মানুষ প্রথমেই সন্দেহ প্রকাশ করে ভোট দিনে দিতে পারবে নাকি আগের রাতেই শেষ হয়ে যাবে। ভোটাধিকার নিয়ে সাধারণ জনগনের মন থেকে আস্থা উঠেই গেছে। বাংলাদেশের সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়া, ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও আমার শ্রদ্ধেয় আলেম-উলামাদের পরার্মশে এই নির্বাচন বর্জন করলাম।

মেয়র না থাকলেও নগরবাসীর ঋণ শোধ করার তাগিদে সিলেটের সকল কল্যাণমূলক কাজে এবং সুখে দুখে সবসময় সিলেটবাসীর পাশে থাকবেন বলে জানান মেয়র।


সিলেটভিউ২৪ডটকম /নাজাত