প্রকাশিত: ২২ মে, ২০২৩ ১২:১৯ (রবিবার)
ফেইসবুকের প্রেমে অন্তঃসত্ত্বা তরুণী, তোলপাড়

ফেইসবুকে পরিচয় ও প্রেম পাশবিক নির্যাতনে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে তরুণী। সিলেটের ওসমানীনগরে বিয়ের প্রলোভনে এক তরুণী প্রেমিক কর্তৃক পাশবিক নির্যাতনের পর ২ মাসের অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় অন্তঃসত্ত্বা এই তরুণী প্রেমিক জয়নালের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে শনিবার রাতে ওসমানীনগর থানায় মামলা দায়ের করেন (মামলা নং-১৪)। মামলার প্রেক্ষিতে পুলিশ তাৎক্ষণিক প্রেমিক জয়নালকে গ্রেফতার করে। পরে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।


গ্রেফতারকৃত জয়নাল উপজেলার তাজপুর ইউপির খাশিপাড়া গ্রামের উপজেলা জাতীয় পার্টি নেতা সিরাজ মিয়ার ছেলে।

 

পুলিশ ও মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ৯ মাস পূর্বে ফেইসবুকের মাধ্যমে জয়নালের সাথে একই উপজেলার গোয়ালাবাজার এলাকার একটি গ্রামের ঐ তরুণীর প্রথম পরিচয়। এক পর্যায়ে ঐ তরুণীর সাথে জয়নালের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। জয়নাল প্রায় সময় প্রেমিকা তরুণীর বাসায় আসা যাওয়া করতেন। জয়নাল তার প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে সিলেট শহরে নিয়ে একটি আবাসিক হোটেলে উঠেন। 


এসময় এই তরুণী প্রেমিক জয়নালকে কাজী অফিসে গিয়ে বিয়ে করার কথা জিজ্ঞেস করলে সে বলে, উক্ত হোটেলে একটি রাত থাকতে হবে এরপর কোর্টে গিয়ে বিয়ে করবো। হোটেলে থাকা অবস্থায় গত ৪ ফেব্রুয়ারী মধ্যরাতে জয়নাল তার প্রেমিকাকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক পাশবিক নির্যাতন করেন। পরের দিন জয়নাল কাজী অফিসে যাওয়ার বিষয়ে টালবাহানা শুরু করলে ওই তরুণী তার বাসায় চলে আসে। পরবর্তীতে প্রেমিক জয়নাল প্রায় সময় প্রেমিকার বাসায় আসা যাওয়া করতেন এবং তাকে বিয়ে করার বিষয়ে মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে বিভিন্ন সময় শারীরিক সম্পর্কে লিপ্ত হয়। 


এক পর্যায়ে তরুণী শারীরিকভাবে অসুস্থতা অনুভব করলে প্রেমিক জয়নাল তাজপুরস্থ প্যারাডাইস হাসপাতালে গিয়ে চিকিৎসক দেখানোর পর চিকিৎসক তাকে বলেন সে (তরুণী) ৫ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা। বিষয়টি প্রেমিক জয়নালকে জানালে গর্ভ থাকা বাচ্চা নষ্ট করে ফেলতে বলে এবং তাকে বিয়ে করবে না বলে জানায়।


ফলে তরুণী নিরুপায় হয়ে গত ১৯ মে দুপুরে জয়নালের খাশিপাড়া গ্রামস্থ বাড়িতে গিয়ে তার পিতা সিরাজ মিয়াকে বিষয়টি অবগত করে। পরে জয়নালের পিতা সিরাজ তরুণীকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে তাড়িয়ে দেন।

 

মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে ওসমানীনগর থানার ওসি মাছুদুল আমিন জানান, অন্তঃসত্ত্বা তরুণীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে মামলা রুজু করে তার কথিত প্রেমিক জয়নালকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আর গতকাল রোববার সকালে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়া ভুক্তভোগী তরুণীকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসিতে) ভর্তি করা হয়।

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ইআ-০৪