প্রকাশিত: ১৯ মে, ২০২৪ ২১:১৩ (রবিবার)
লোকমান চৌধুরীর ‌‘বিজয় ঠেকাতে’ ঐক্যবদ্ধ আওয়ামী লীগ

৫ জুন অনুষ্ঠিতব্য জকিগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যন লোকমান উদ্দিন চৌধুরীর বিজয় ঠেকাতে ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা।
 

রবিবার সন্ধ্যায় এ নিয়ে জকিগঞ্জ শহরের একটি কমিউনিটি সেন্টারে উপজেলা উপজেলা আওয়ামী লীগ সহসভাপতি মোস্তফা আহমদ কমান্ডারের সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, কৃষকলীগ, শ্রমিকলীগ, সেচ্ছাসেবকলীগ ও ছাত্রলীগের সাবেক ও বর্তমান নেতাকর্মীরা বৈঠক করেছেন।
 

এ সময় নেতাকর্মীরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি লোকমান উদ্দিন চৌধুরী গত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থী সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ড. আহমদ আল কবিরের বিরুদ্ধে ছিলেন। এতে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা কষ্ট পেয়েছেন। উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি লোকমান উদ্দিন চৌধুরী তাঁর কিছু সংখ্যাক মনোনীত লোক ছাড়া অন্যদেরকে অবমূল্যায়ন করেন। জকিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের রাজনীতিকে তিনি কুক্ষিগত করে ধ্বংসের ধারপ্রান্তে নিয়ে গেছেন। আওয়ামী লীগকে বাঁচাতে এবার উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে তাঁর বিজয় ঠেকাতে ঐক্যবদ্ধ তৃণমূল নেতাকর্মীরা।
 

নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, চেয়ারম্যান পদের প্রার্থীদের নিয়ে বিচার বিশ্লেষণ চালিয়ে যাচ্ছেন। লোকমান উদ্দিন চৌধুরীর বিজয় ঠেকাতে যাকে ভোট দেওয়ার প্রয়োজন হবে তাঁকে ঐক্যবদ্ধভাবে সমর্থন দিয়ে বিজয়ী করা হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে একটি করে কমিটি গঠন করা হবে। এই কমিটির মাধ্যমে লোকমান উদ্দিন চৌধুরীর বিজয় ঠেকাবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
 

সভায় বক্তব্য দেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা মাসুক, প্রবীণ আওয়ামী লীগ নেতা লুৎফুর রহমান খাঁন, তুতিউর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও মানিকপুর ইউপির চেয়ারম্যান আবু জাফর মো. রায়হান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক ও সুলতানপুর ইউপির চেয়ারম্যান রফিকুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগ আহবায়ক ও পৌর কাউন্সিলর কামরুজ্জামান কমরু, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহবায়ক মখলিসুর রহমান মেখন, সাবেক যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল গফুর, উপজেলা যুবলীগ যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল্লাহ সুমন, উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সদস্য ফয়েজ আহমদ, উপজেলা যুবলীগ নেতা আব্দুল কাইয়ুম, আওয়ামী লীগ নেতা আমিনুল ইসলাম চৌধুরী শিমুল, উপজেলা শ্রমিকলীগ সাধারণ সম্পাদক শফিউল আলম মুন্না মেম্বার, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মুকিত মেম্বার, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি দেলোয়ার হোসেন, ছাত্রলীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন লিমন, পৌরসভা ছাত্রলীগের সভাপতি তামিম আহমদ রাফে, উপজেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি আহমদ হোসাইন তানিম, সহ সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিমসহ বিভিন্ন ইউনিয়ন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের সাবেক ও বর্তমান নেতাকর্মীরা বক্তব্য দেন।
 

এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগ সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যন লোকমান উদ্দিন চৌধুরীর সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তিনি বলেন, কিছুটা ভূল বুঝাবুঝির কারণে কিছু নেতাকর্মী আমার ওপর রাগ করেছেন। আমি আওয়ামী লীগ সভাপতি হিসেবে শেষ পর্যন্ত সবাই আমার মঞ্চে আসবেন। অপর এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, এরা অন্য কোন প্রার্থীর মঞ্চে ওঠলেও আমার ভোটের মাঠে তেমন প্রভাব পড়বেনা।






সিলেটভিউ২৪ডটকম/হাছিব/এসডি-৩০৬৬