প্রকাশিত: ২২ মে, ২০২৪ ১৫:৩৭ (শুক্রবার)
কোম্পানীগঞ্জে নির্বাচন পরবর্তী উত্তেজনা

সদ্য সম্পন্ন হওয়া ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক মো. মজির উদ্দিন। তিনি আনারস প্রতীকে ২৮ হাজার ২৭৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী উপজেলার বর্তমান চেয়ারম্যান শামীম আহমদ মোটরসাইকেল প্রতীকে ২২ হাজার ২১৩ ভোট। নির্বাচন না করলেও মোটরসাইকেল প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নেওয়া শামীম আহমদকে সমর্থন দিয়েছেন কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াদুদ আলফু।

 


শামীম আহমদ পরাজিত হওয়ার পর বিজয়ী প্রার্থী মো. মজির উদ্দিনের সমর্থকরা ফেসবুকে সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াদুদ আলফুকে ইঙ্গিত করে বিভিন্ন পোস্ট দেন, এবং গালাগালি করার অভিযোগ ওঠে। সে জন্য ২১ মে রাতে কোম্পানীগঞ্জ থানায় অভিযোগ করেন আলফু।

 

সেই রেশ ধরেই কোম্পানীগঞ্জ থানা বাজার এলাকায় সকাল থেকেই উত্তেজনা বিরাজ করছে। বিজয়ী প্রার্থী মো. মজির উদ্দিনের সমর্থকরা কোম্পানীগঞ্জ তেলিখাল এলাকার রাস্তা বন্ধ করে যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়। আর সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াদুদ আলফুর সমর্থকরা তেলিখাল ইউনিয়ন পরিষদের সামনে জড়ো হয়েছেন।


এতে এলাকায় থমথমে পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

 

কোম্পানীগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম দস্তগীর আহমদ জানান, ফেসবুক পোস্টের জেরে গতকাল রাতে থানায় অভিযোগ করেন সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াদুদ আলফু। আজ সকাল থেকেই কোম্পানীগঞ্জ থানাবাজার ও তেলিখাল এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে পুলিশ।

 

 

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম / জলিল/ নাজাত