প্রকাশিত: ২৪ মে, ২০২৪ ১৭:০৭ (শুক্রবার)
ফেঞ্চুগঞ্জে উপজেলা নির্বাচন ব র্জ ন করতে লিফলেট বিতরণ করেন জেলা বিএনপি

সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী বলেছেন, “দীর্ঘ দেড় দশক ধরে দেশে অবাধ, সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও সকলের কাছে গ্রহণযোগ্য কোন নির্বাচন হচ্ছে না। সরকারের মন্ত্রী-এমপি সহ তাদের নেতাকর্মীরা দুর্নীতি, নীতিহীনতা ও স্বজনপোষণে জনগণের টাকায় ফুর্তিবাজী করছে। লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা বিদেশে পাচার করেছে। দেশের অর্থনীতিকে ধ্বস করে দিয়েছে, আইন শৃঙ্খলা ক্রমাগত ভেঙ্গে পড়ছে, মানবাধিকার ও ভোটাধিকার কেড়ে নেয়া হয়েছে, দেশে আজ কথা বলার স্বাধীনতাও নেই। সর্বোপরি দেশে এক ভয়ানক অরাজকতা বিরাজ করছে। এমন অবস্থায় ফ্যাসিস্ট আওয়ামীলীগের সাজানো প্রতারণামূলক ডামি উপজেলা নির্বাচনে কেউ অংশ অংশ নিবেন না। বিএনপি কোন কর্মী সমর্থক এই নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় যাবে না, আর যারা যাবেন তাদের বিরুদ্ধে দল কঠোর ব্যবস্থা নিচ্ছে। পাতানো নির্বাচনী প্রক্রিয়ায় যারা যাবেন তাদের জন্য বিএনপি দরজা  বন্ধ হয়ে যাবে। তাই এই প্রতারণার ডামি উপজেলা নির্বাচন নিয়ে জনগনকে সচেতন করতে হবে। তাই সবাইকে সাথে নিয়ে এই প্রহসনের নির্বাচনকে বর্জন করতে হবে। বেগম খালেদা জিয়াকে নিঃশর্ত মুক্ত না করে এবং তারেক রহমানের দেশে ফেরার প্রতিবন্ধকতা দুর না হওয়া পর্যন্ত আওয়ামী লীগের অধিনে দেশে কোন সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না। তাই অবিলম্বে একটি নির্দলীয় ও নিরপেক্ষ সরকারের অধিনে জাতীয় নির্বাচনের ব্যবস্থা করতে হবে। অন্যতায় দেশ অস্থিত্ব সংকটে পড়বে।

শুক্রবার বাদ জুমআহ ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা সদরে চলমান প্রহসনের উপজেলা নির্বাচন বর্জন করতে লিফলেট বিতরণ শেষ পথ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ফেঞ্চুগঞ্জ থানা রোডে উপজেলা বিএনপির সভাপতি ওয়াহিদুজ্জামান চৌধুরী সুফির সভাপতিত্বে ও সহ সভাপতি রেজাউল করিম রায়হানের সঞ্চালনায় পথসভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন- সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী।

সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরী বলেন, দেশের গণতন্ত্র, ভোটাধিকার ও বাকস্বাধীনতাকে গলাটিপে হত্যা করা হয়েছে। নির্বাচন ব্যাবস্থাকে কলঙ্কিত করা হয়েছে। মানবাধিকার, গণতান্ত্রিক মূল্যবোধ ও জনগণের আশা-আকাঙ্খা অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। বাক স্বাধীনতা প্রয়োগের জন্য অনেক মানুষকে জেল-জুলুম ভোগ করতে হয়েছে ও হচ্ছে। সর্বোপরি দেশে এক ভয়াবহ ক্রান্তিকাল চলছে। বিএনপির নেতৃত্বে সমমনা রাজনৈতিক দলগুলো জনগনকে সাথে নিয়ে ‘নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন এবং দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির ১ দফার দাবিতে আন্দোলন করছে। এমন পরিস্থিতি কোন পাতানো ও ডামি উপজেলা নির্বাচনে সাধারণ মানুষ অংশ নিবে না।

এসময় অন্যানের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন- সিলেট জেলা বিএনপির সহ তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক আকবর হোসেন, উপজেলা বিএনপি সহ সভাপতি মহিবুদ্দিন বেলাল, ফখরুল ইসলাম পাপলু, রাজু চৌধুরী, এনায়েত হোসেন রুহেল, সাদিকুর রহমান টিপু, খায়রুল ইসলাম ছুটন, রাশেদুল হাসান চৌধুরী রাসেদ, শাহিন আহমদ, দিনার আহমদ শাহ, বাদল আহমদ,জামাল আহমদ, ফখরুল ইসলাম নিশাত, রাহিবুল হাসান চৌধুরী সুজন  ফাহিজুল করিম সায়মন, কমল হাসান বাবর প্রমূখ।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/প্রেবি/এসডি-৪০৪২