ক্রিকেটকে আরও বেশি আকর্ষণীয় ও দর্শক বান্ধব করতে বেশকিছু উদ্যোগ হাতে নিয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। এর একটি প্রতি মাসের সেরা পারফর্মার বেছে নিয়ে পুরস্কৃত করা।

চলতি বছরের জানুয়ারি মাস থেকে এই প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর বাংলাদেশের হয়ে মাস সেরা ক্রিকেটারের পুরস্কার জিতেছেন সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম। এবার সেরা হওয়ার দৌড়ে নাম এসেছিল নাসুম আহমেদের, তবে সাকিব-মুশফিকরা সেরার পুরস্কার পেলেও এ যাত্রায় অপেক্ষা বেড়েছে তার।

আইসিসির সেপ্টেম্বর মাসের সেরা হওয়ার দৌঁড়ে নেপালের সন্দ্বীপ লামিচানে ও যুক্তরাষ্ট্রের জাসকারান মালহোত্রার সঙ্গে নাম এসেছিল বাংলাদেশের বাঁহাতি স্পিনার নাসুম আহমেদের। তবে নেপালের লামিচানের সঙ্গে পেরে উঠেননি নাসুম। সেপ্টেম্বরের সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন নেপালের লেগ স্পিনার। আজ সোমবার (১১ অক্টোবর) এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানিয়েছে আইসিসি। সঙ্গে নারী বিভাগের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার উঠেছে ইংল্যান্ডের হিদার নাইটের হাতে।

নাসুম মনোনয়ন পেয়েছিলেন নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স বিবেচনায়। গেল মাসের শুরুতে দেশের মাটিতে অনুষ্ঠিত এই সিরিজে নাসুম খেলেন পাঁচ টি-টোয়েন্টিতেই, শিকার করেন ৮ উইকেট। সঙ্গে তার ইকোনোমি ছিল যথেষ্ট ভালো। দলের ৩-২ ব্যবধানে সিরিজ জয়ে তিনি রেখেছিলেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। তারই ফলশ্রুতিতে আইসিসির সেরার তালিকায় চলে আসেন তিনি। তবে ভোটাভুটিতে তাকে পিছনে ফেলেছেন লামিচানে।

লামিচানে গত মাসে আইসিসির ওয়ার্ল্ড কাপ সুপার লিগের দ্বিতীয় স্তরে দারুণ বোলিং করেছেন। ৬ ওয়ানডেতে তিনি তুলে নিয়েছেন ১৮ উইকেট। এম পারফরম্যান্সের দৃশ্যমান পুরস্কারটি পেলেন এই লেগ স্পিনার।

মে মাসের পারফরম্যান্স অনুযায়ী এই খেতাবের জন্য মনোনয়ন পেয়েছিলেন বাংলাদেশের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম, পরে তার হাতেই ওঠে মাস সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার। এরপর জুলাই মাসে সাকিব পেয়েছিলেন সেরা হওয়ার মনোনয়ন এবং পেয়েছেনও সেরার স্বীকৃতি।


সিলেটভিউ২৪ডটকম / ঢাকা পোস্ট / ডালিম