হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার আদাঐর ইউনিয়নের কবিলপুর গ্রামে দুই পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ১৯ জন আহত হয়েছে। বুধবার(২৪ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে আদাঐর ইউনিয়নের কবিলপুর গ্রামে ধান কাটা নিয়ে নাসির মিয়া ও একই গ্রামের রহিছ আলীর ছেলে ফজল মিয়ার মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ফজল মিয়া তার নিজ জমির ধান কাটার জন্য পার্শ্ববর্তী এলাকা থেকে একটি ধান কাটার মেশিং নিয়ে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় একই গ্রামের নাসির মিয়া তাকে বাধা দিলে উভয় পক্ষের মাঝে কথাকাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে লাঠি সোটা ও দেশীয় ধারলো অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। সংঘর্ষে নারী পুরুষসহ ১৯ জন আহত হয়েছে।

আহতরা হলেন, ফুলমতি বেগম (৫১), মিনা বেগম(২৮), জসু মিয়া (২২), সজল মিয়া (২১), ফজল মিয়া(২৪), মুলেদা বেগম(৩০), লিটন(৩২), মাসুম মিয়া(১৭), নাসির মিয়া(৩৫), জসিম(২৫), মঈন উদ্দিন(২৪),লাল মিয়া(৩০), আমেনা বেগম(২৩), মারুফা(২৩), হৃদয় মিয়া(২১), পরমিলা(৩০), মোঃরুবেল মিয়া(৩২), স্বপন মিয়া(১৭)ও জুয়েল মিয়া(২৫)। আহতদের উদ্ধার করে মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কয়েকজনকে চিকিৎসা শেষে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় বাকিদেরকে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য ব্রাহ্মণবাড়ীয়া সদর হাসপাতালে প্রেরন করা হয়।

মাধবপুর থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে মাধবপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে।বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।এ ঘটনায় থানায় এখন পর্যন্ত কেউ অভিযোগ করেনি ও কাউকে আটক করা হয়নি।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/পিটি-৭