সিলেটের ওসমানীনগর উপজেলার তাজপুর থেকে এক কিশোরীর রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার ভোরে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত কিশোরী দিপা রানী সিংহ (১৪) কুমিল্লা জেলার বরুড়া থানার তলাগ্রামের পীযুষ চন্দ্র সিংহের মেয়ে। পরিবারের সাথে ওসমানীনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অরুণোদয় পাল ঝলকের তাজপুর দুলিয়ারবন্দস্থ বাসায় ভাড়া থাকতো দিপা।


দিপা তাজপুর মঙ্গলচন্ডি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী ছিল।

সিলেট জেলা পুলিশের মিডিয়া ফোকাল পয়েন্ট কর্মকর্তা মো. সম্রাট তালুকদার জানান, গতকাল বুধবার রাতে খাবার খেয়ে নিজ কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে দিপা। আজ বৃহস্পতিবার ভোর ৫টার দিকে তাকে তার কক্ষে না পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন তার বাবা-মা। পরে পার্শ্বস্থ নির্মাণাধীন একটি ভবনের একতলা ছাদের ওপর রক্তাক্ত অবস্থায় দিপাকে দেখতে পান তারা।

তাকে উদ্ধার করে তাজপুরস্থ একটি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

তিনি আরও জানান, সিলেট জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ প্রক্রিয়াধীন।

দিপা ওই ভবনে কিভাবে গেল, তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে কিনা এসব বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/আরআই-কে