ফোনের স্টোরেজ ফুল হলে নানা সমস্যা দেখা দেয়। মূল যে সমস্যাটা হয়, তা হলো ফোন হ্যাং করা। এই সমস্যার সমাধানে কয়েকটি উপায় মেনে চলুন। 
 

​ক্যাশে ক্লিয়ার করুন নিয়মিত


আমাদের মোবাইল ভর্তি অ্যাপ। আর সেই সব অ্যাপের দৌলতে আমাদের মোবাইল নিয়মিত ভরতে থাকে ক্যাশেতে। যা ফোনের অনেকটা স্টোরেজ দখল করে নেয়। ফলে সময়ে সময়ে মনে করে মোবাইলের ওই সব ক্যাশে ক্লিয়ার করে ফেলা কিন্তু খুব জরুরি। নাহলেই ফোন হয়ে পড়বে ভীষণ স্লো, এমনকি হ্যাং করার মতো সমস্যার মুখেও পড়তে পারেন আপনি।
 

​বড় বড় ফাইল মুছে ফেলুন

বহু ক্ষেত্রেই বহু অপ্রয়োজনীয় ফাইল মোবাইল স্টোরেজে জমা হয়ে থাকে, যা তেমন কাজে লাগে না। সেসব আদতে আমাদের মোবাইলকে অকারণ ভারী করে তোলে। পাশাপাশি থেকে যায় বহু ডুপ্লিকেট ফাইলও। তা ছবি হতে পারে, ভিডিয়োও হতে পারে। সেগুলোকে খুঁজে মুছে ফেলুন মোবাইল থেকে। সেসব খোঁজার জন্য বহু অ্যাপ মিলবে প্লেস্টোর কিংবা অ্যাপস্টোরে। এই কাজটি করলেই দেখবেন আপনার মোবাইল অনেকটাই হালক হয়েছে।
 

মুছে ফেলুন অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ

আমাদের মোবাইলে গুচ্ছের অ্যাপ থাকলেও আমরা ব্যবহার করি কিন্তু হাতে গোনা। তবে ওই সব গুচ্ছের অ্যাপ কিন্তু আমাদের মোবাইলের অনেকটা জায়গা দখল করে থাকে। তাই মোবাইলের স্পেস খালি করার জন্য ওই সব অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ আনইনস্টল করে দেওয়া দরকার সবার আগে। তাতে আপনার মোবাইলকে স্লো হওয়ার হাত থেকে অনেকটাই বাঁচানো সম্ভব হবে।
 

 ভিডিও স্টোর করুন অন্যত্র​

বাড়িতে কম্পিউটার বা ল্যাপটপ তো সকলেরই থাকে। আপনারও নিশ্চয়ই রয়েছে। তাহলে অকারণে সব ছবি, ভিডিও মোবাইলে জমিয়ে ফোন ভারী করবেন কেন! মোবাইলের স্পেস বাড়াতে সময়ে সময়ে মোবাইলের ছবি ভিডিও স্টোর করে রাখুন ল্যাপটপ বা ডেস্কটপে। আর সেখানেও যদি জায়গার টানাটানি হয়, তাহলে ব্যবহার করতেই পারেন এক্সটারনাল হার্ডডিস্ক। যে কোনও ই-কমার্স সাইটেই পেয়ে যাবেন নানান দামের এক্সটারনাল হার্ডডিস্ক।
 

​​ক্লাউড ব্যবহার করুন

হতেই পারে ল্যাপটপ-ডেস্কটপে জায়গা নেই। ভরে গিয়েছে হার্ড ড্রাইভ। সেসব ক্ষেত্রেও আপনার স্টোরেজের অভাব হবে না কখনওই। ব্যবহার করুন ক্লাউড স্টোরেজ। গুগল থেকে শুরু করে সমস্ত মোবাইল সংস্থারই নিজস্ব ক্লাউড স্টোরেজ। যা নেট ব্যবহার করে নিজস্ব স্টোরেজে সাজিয়ে রাখবে আপনার সমস্ত ছবি ও ভিডিও। ফোন তো ফাঁকা থাকবেই, সেসব ভিডিও এবং ছবিও থাকবে একেবারে নিরাপদ হাতে।

 

সিলেটভিউ২৪ডটকম/ডেস্ক/এনটি


সূত্র : ঢাকা মেইল