বীর চট্টলার কৃতি সন্তান, যুক্তরাজ্য প্রবাসী ও বিশিষ্ট তবলাবাদক ব্যারিস্টার পন্ডিত সুদর্শন দাশ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ৫ম গিনেজ ওয়ার্ল্ডের রেকর্ড অর্জন করায় সিলেট-চট্টগ্রাম ফ্রেন্ডশীপ ফাউন্ডেশন’র পক্ষ থেকে তাকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। নগরীর কেন্দ্রীয় মুসলিম সাহিত্য সংসদে এই সংবর্ধনা দেওয়া হয়।

উক্ত আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছি‌লেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী (নাদেল)। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছি‌লেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য রাহাত তরফদার, কবি রাহনামা সাব্বির চৌধুরী (মনি), সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত ,মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগ’র সাংগঠনিক সম্পাদক নার্গিস সুলতানা রুমি, চট্টগ্রাম সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট বিশ্বনাথ ঘোষ, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি কিশওয়ার জাহান সৌরভ।


সিলেট ভিউ'র খবর নিয়মিত পেতে

দিয়ে যুক্ত থাকুন

অনুষ্ঠানে শুরুতেই বৈশ্বিক মহামারী করোনাকালীন যারা প্রয়াত হয়েছেন তাদের সকলের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে ১ মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। সিলেট-চট্টগ্রাম ফ্রেন্ডশীপ ফাউন্ডেশন’র প্রতিষ্ঠাতা আহবায়ক শহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহবায়ক উৎফল বড়ুয়ার স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল আলিম আলম, আবুল বশর, কয়েছ আহমদ, সিনিয়র সদস্য সুলতানা জান্নাত, শেলু বড়ুয়া, রুনা বড়ুয়া, সদস্য আব্দুল মালেক, মোঃ শাকিল মিয়া, শাহ আলম জার্নেল প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন সিলেট চট্টগ্রাম ফ্রেন্ডশীপ ফাউন্ডশনের যুগ্ম আহবায়ক ইঞ্জিনিয়ার রানা বড়ুয়া।

প্রসঙ্গত, ২০২১ সালের ৮ ডিসেম্বর লন্ডনে একটানা ১৬ ঘণ্টা ৪০ মিনিট ধরে ড্রাম বাজিয়ে বিশ্বের দীর্ঘতম সময় ধরে বাদ্যযন্ত্র বাজানোর রেকর্ডটি গড়েন পন্ডিত সুদর্শন দাশ। এর আগে ২০১৬ সালে লংগেস্ট তবলা ম্যারাথনে তবলা বাজিয়ে প্রথম রেকর্ডটি গড়েন তিনি। ২০১৭ সালে টানা ২৭ ঘণ্টা ঢোল বাজিয়ে, ২০১৮ সালে টানা ১৪ ঘন্টা ড্রাম বাজিয়ে মোট পাঁচটি বিশ্বরেকর্ড ঝুলিতে ভরেন চট্টগ্রামের এই কৃতি সন্তান।

সুদর্শন দাশের পৈতৃক বাড়ি চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার কালিয়াইশ ইউনিয়নে। তবে তার জন্ম চট্টগ্রাম নগরীর ফিরিঙ্গিবাজারে। পণ্ডিত সুদর্শন যুক্তরাজ্যের পূর্ব লন্ডনের তবলা অ্যান্ড ঢোল একাডেমির অধ্যক্ষ।

সংবর্ধিত অতিথি ব্যারিস্টার পন্ডিত সুদর্শন দাশ সিলেটে সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানটি বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও মুজিববর্ষকে উৎসর্গ করেন এবং বাংলাদেশের জন্য যেন আরো অর্জন বয়ে আনতে পারেন সেজন্য সকলের প্রতি দোয়া চান।

সিলেটভিউ২৪ডটকম/প্রেবি/আরআই-কে